আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ একেই বলে পরিহাস! মৌলবাদীরা মুখ খুললেই যেন পরিহাসের সাহস বড্ড বেড়ে যায়। বারবার মাথা চাগাড় দিয়ে ওঠে।‌ ইউক্রেনের ধর্মগুরুর মতে, সমলিঙ্গের বিবাহ বেড়েছে বলেই করোনার সংক্রমণ বেড়েছে। যেই না কথাটি মুখ দিয়ে বের করেছেন, অমনি পরিহাসের আবির্ভাব। শেষমেশ করোনা তাঁরই ঘাড়ে চেপে বসল। 
ইউক্রেনের অর্থডক্স চার্চের প্রধানকে প্যাট্রিয়ার্ক ফিলারেট (‌নামটিতেও সেই পরিহাস)‌ বলা হয় সেদেশে। ৯১ বছরের বিশপ করোনায় আক্রান্ত হলেন। এবং ভর্তি হতে হল হাসপাতালে। এমনকী জানা গিয়েছে, নিউমোনিয়ার প্যাচ দেখা গিয়েছে তাঁর ফুসফুসে। কিন্তু এতদিন তিনি মনে করতেন সমকামী মানুষেরা যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হচ্ছেন বলেই সংক্রমণ বাড়ছে। মার্চমাসে তিনি একটি সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ’‌আসলে ঈশ্বর সমকামীদের অভিশাপ দিচ্ছেন। আর তারই অপর নাম করোনা ভাইরাস। এক কথায় বললে বলা যায়, সমকামী বিবাহ এর জন্য দায়ী।’‌ এমন মন্তব্য করার পর গোটা বিশ্বের প্রান্তিক যৌনতার মানুষেরা (‌এলজিবিটিকিউ+‌)‌ তীব্র সমালোচনা করেছিলেন তাঁর। ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছিলেন অনেকে। এমনকী বিদ্বেষ ছড়ানোর জন্য তাঁর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ারও কথা হচ্ছিল। কিন্তু হায়!‌ শেষমেশ সেই করোনা ভাইরাসই তাঁর দেহে থাবা বসাল। 
তবে এ ঘটনা নতুন নয়। ইরাকের এক ধর্মগুরুও বলেছিলেন, ‘‌আসলে আল্লা চীনাদের অভিশাপ দিচ্ছেন।’‌  

জনপ্রিয়

Back To Top