আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ কথায় আছে রাখে হরি তো মারে কে!‌ তবে কথাটি হয়ত রাশিয়ার মানুষরা জানেন না। জানলে তাঁরা হয়ত একই কথা বলতেন। কারণ সম্প্রতি তাঁরা এরকমই একটি ঘটনার সাক্ষী থেকেছেন। যেখানে ৩৫ ঘণ্টা ধ্বংসস্তূপের নীচে থাকার পরও জীবিত উদ্ধার হল দশ মাসের এক শিশু। 
এর আগে গত সোমবার রাশিয়ার মাগনিতোগোরস্ক শহরে একটি ১০ তলা অ্যাপার্টমেন্টে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এরপরই ধ্বসে পড়ে গোটা বিল্ডিংটি। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত নয়জনের মৃত্যুর কথা জানা গিয়েছে। নিখোঁজ রয়েছেন আরও ৩২ জন। প্রাথমিক তদন্তে সামনে আসে, গ্যাসের সিলিন্ডারে বিস্ফোরণ হওয়ার পরই এই ভয়ানক দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। জানা গিয়েছে, সোমবারের পর মঙ্গলবারও সেখানে উদ্ধারের কাজ চলছিল। এরপর কাজ থামিয়ে কোথা থেকে শিশুটির কান্নার আওয়াজ আসছে, তা দেখতে থাকেন উদ্ধারকার্যের সঙ্গে যুক্ত কর্মীরা। এরপর তাকে জীবিত বের করে আনা হয়। দেখা যায়, একটি দোলনায় কম্বলে মোড়া রয়েছে সে। তবে প্রায় মাইনাস ৩০ ডিগ্রি তাপমাত্রা ওরকম ভাবে চাপা পড়ে থাকায় তার শরীরে নানান ক্ষত হয়েছে। তার মাথা এবং পায়ের একাধিক জায়গায় আঘাত লেগেছে। চিকিৎসার জন্য ইভান নামে শিশুটিকে উড়োজাহাজে করে মস্কো নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এর আগে তার মাকেও জীবিত উদ্ধার করা হয়েছিল। তবে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন ইভানের অবস্থা বেশ আশংকাজনক। তাকে দ্রুত সুস্থ করে তোলার চেষ্টা চলছে।

জনপ্রিয়

Back To Top