আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ মাছ। বাঙালির দৈনন্দিন জীবনের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে থাকা একটি খাদ্যবস্তু। মাংস বা ডিম বাদ দিলেও রান্নার মেনুতে মাছ থাকবে না এরকমটা হয়ত অনেকেই মেনে নিতে পারবে না। কিন্তু মাছ–ভাত খেতে বসে হঠাৎ যদি পাতে পড়ে পুরুষাঙ্গের মতো দেখতে কোনও মাছ!‌ অবাক হবেন না, এদেশে না হলেও বিদেশে চল রয়েছে এই ‘‌পুরুষাঙ্গ মাছ’ খাওয়ার। যার পোশাকি নাম ‘‌পেনিস ফিস’।  ভারতে খাওয়ার চল নেই কিন্তু জানেন কী জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া এমনকি চীনের উপকূলবর্তী এলাকায় দেখতে পাওয়া যায় এই মাছ। আর এশিয়ার এই দেশগুলির বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে দুর্দান্ত নানান পদের সঙ্গে পরিবেশন করা হয় এই ‘‌পেনিস ফিস’–কে।‌ হরেক রকমের সুস্বাদু পদ রান্না করা যায় এই পুরুষাঙ্গ মাছ দিয়ে। রাশিয়ার একাধিক গবেষণাগারে এই মাছ নিয়ে ইতিমধ্যে চলেছে গবেষণা। কিন্তু কেন এমন নাম?‌ এই মাছ দেখতে অনেকটা সসেজের মতো।  অনেকেই আবার এর সঙ্গে মিল খুঁজে পান পুরুষাঙ্গের। আর তাই এই মাছের এ ধরনের নামকরণ। নরম, অত্যন্ত পিচ্ছিল এই মাছের শরীরে কোনও দাঁত নেই।  যে বিজ্ঞানীরা এই মাছটি আবিষ্কার করেছেন তাঁদের দাবি, দাঁত না থাকায় বিপদে পড়লে প্রাণের মায়া ত্যাগ করতে হয় এই ‘‌পেনিস ফিস’–কে।‌ তবে অনেকেই আবার এটিকে মাছের পর্যায়ে ফেলতে নারাজ। তাঁদের মতে, এটি আসলে এক প্রকার সামুদ্রিক কৃমি। যাই হোক না কেন, ওই দেশগুলিতে গেলে একবার খেয়ে দেখবেন, কেমন খেতে ‘‌পেনিস ফিস’ বা পুরুষাঙ্গ মাছ।‌ ‌

জনপ্রিয়

Back To Top