আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌‌‌রানি নন, কিন্তু বৈভব ও ঐশ্বর্যে কোনও রাজরানির চেয়ে কম যান না নীতা আম্বানি। সম্প্রতি একটি পত্রিকা জানিয়েছে দেশের অন্যতম ধনী শিল্পপতি মুকেশ আম্বানির স্ত্রী নীতার দৈনন্দিন জীবনযাপনের খুঁটিনাটি। যা জানলে চোখ কপাল উঠবে অনেকেরই। অবশ্য স্বামীর পাশাপাশি নীতা নিজেও অনেকগুলি ব্যবসা চালান। সেই ব্যবসায় তিনি পিছনে ফেলে দিয়েছেন অনেককেই।
পত্রিকাটি জানাচ্ছে নীতার সকালে যে চা খান, সেটা ভারতীয় বাজারে সবচেয়ে দামী চা পাতা থেকে তৈরি হয়। আর যে কাপে তিনি চা খান, তার দাম দেড় কোটি টাকা। আসলে এই কাপ আনা হয়েছে জাপানের ‘‌নোরিতেক’‌ সংস্থা থেকে। কয়েক শো’‌ বছরের পুরনো এই সংস্থাটি চিনামাটির বাসন তৈরি করার জন্য বিখ্যাত। এবং এদের বাসনের দামও আকাশ ছোঁয়া। যে কাপে নীতা চা খান, সেগুলি আবার সোনার পাতে মোড়া!‌ আর এদিকে চা পাতা বাবদই নীতার খরচ মাসে তিনলক্ষ টাকা।
বুলকারি,‌ রাডো, গুচি, কেলভিন ক্লেন, ফসিল— এই সবকটি ব্র্যান্ডেরই ঘড়ির দাম আকাশ ছোঁয়া। এর বাইরে অন্য কোনও সংস্থার বানানো ঘড়ি পরেন না নীতা। বহুমূল্য ঘড়ির বিরাট সংগ্রহ রয়েছে তাঁর কাছে। এরপরে নীতার হাতব্যাগের দাম ফাঁস করেছে পত্রিকাটি। ৩০ থেকে ৪০ লক্ষ টাকা দাম এক একটির, এমন অজস্র হাতব্যাগ রয়েছে নীতার কাছে। ব্যাগের ওপরে নীতার দুর্বলতা সর্বজনবিদিত। তাই প্রায়শই নতুন ব্যাগ ব্যবহার করতে দেখা যায় তাঁকে। পেড্রো, গার্সিয়া, মার্লিনের মতো বহুমূল্য ব্র্যান্ডের জুতো ব্যবহার করেন নীতা। যার দাম শুরুই হয় এক লক্ষ টাকা থেকে। আর, যে জুতো নীতা একবার পরেন, তা আর দ্বিতীয়বার পরতে দেখা যায় না তাঁকে।‌

জনপ্রিয়

Back To Top