আজকাল ওয়েবডেস্ক: মহামারীর আবহে মানবিকতা। সেই পথে হেঁটেই মুম্বইয়ের এক স্থপতি তাঁর নবনির্মিত, বিলাসবহুল, ১৯তলা বাড়িটি কোভিড হাসপাতাল করার জন্য দান করলেন বৃহন্মুম্বই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন বা বিএমসি–কে। ওই বহুতলটি সম্পূর্ণ তৈরি হয়ে গিয়েছিল এবং শুধু বাসিন্দাদের সেখানে গৃহপ্রবেশের অপেক্ষা ছিল। এব্যাপারে শীজি শরণ ডেভেলপার্সের অন্যতম মালিক মেহুল সাংভি বললেন, ‘‌আমরা ফ্ল্যাটমালিক এবং ভাড়াটেদের সঙ্গে আলোচনা করেই  এটা স্বেচ্ছায় করেছি। এই বাড়িটা আগে কোভিড–১৯ রোগীদের কোয়ারানটাইন সেন্টার হিসেবেও ব্যবহৃত হয়েছে।’‌
মালাডের এসভি রোডে অবস্থিত ওই ১৯তলা বাড়িটিতে মোট ১৩০টি ফ্ল্যাট আছে। রাজ্য সরকার তার অকুপেশন সার্টিফিকেটও দিয়ে দিয়েছে। যার অর্থ শুধু ফ্ল্যাটের বাসিন্দাদের সেগুলি চাবি তুলে দেওয়াই বাকি ছিল স্থপতিদের তরফে। কিন্তু ফ্ল্যাট বিক্রি করে লাভ না করে উল্টে জনসেবায় বহুতলটি দান করেছে ওই স্থপতি গোষ্ঠী। এখনও পর্যন্ত ওই বহুতল হাসপাতালে ৩০০জন করোনা রোগীকে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। একটি ফ্ল্যাটে চারজন রোগীকে রাখা  সম্ভব। এধরনের বিলাসবহুল বহুতলকে জনস্বার্থে দান করায় স্থপতিদের প্রশংসা করে ধন্যবাদও জ্ঞাপন করেছেন উত্তর মুম্বইয়ের বিধায়ক। মেহুল সাংভির এই পদক্ষেপ থেকে আরও অনেকে উৎসাহিত হয়ে এগিয়ে আসবেন বলেই তাঁর আশা। 
মহারাষ্ট্রই দেশের মধ্যে সব থেকে করোনা–আক্রান্ত রাজ্য। সেখানে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা ১,২৮,২০৫জন। মৃতের সংখ্যা মোট ৫৯৮৪জন। শুধু মুম্বইতেই মোট সংক্রমিত ৬৫,২৬৫জন এবং মৃত ৩৫৫৯জন। সেই শহরে দাঁড়িয়ে এক শহরবাসীর এধরনের পদক্ষেপ নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়।
ছবি:‌ এএনআই 

জনপ্রিয়

Back To Top