আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ পর্দায় চুমু, যৌন দৃশ্য— এসব নিয়ে যেমন ছুৎমার্গ রয়েছে আজ, বিংশ শতাব্দীর গোড়াতে কিন্তু এসব ছিল না। ছিল না সেন্সর বোর্ডের কচকচানি। তাই তখন নায়িকারা অবলীলায় স্বল্পবাসে পর্দায় ধরা দিতেন। চুমু খেতেন নায়ককে। আপনার যদি না ভালো না লাগে বা অশ্লীল মনে হয়, আপনি দেখবেন না। দর্শককে সেটুকু সাবালক তখন ধরেই নেওয়া হত।
শুনলে চমকে যাবেন, শশী কাপুর–জিনত আমনের ঢের ঢের বছর আগে প্রায় চার‌ মিনিট ধরে পর্দায় নায়ককে চুমু খেয়েছিলেন দেবিকা রানী। নায়ক যদিও ছিলেন তাঁর স্বামী। তবে দেবীকাই কিন্তু প্রথম নন। তার আগেও ভারতীয় চলচ্চিত্রে চুম্বন দৃশ্য দেখানো হয়েছে। দেবীকার আগে সেই চুমুর ইতিহাসই একটু ঘেঁটে নেওয়া যাক।
১৯২১ (‌বিলেত ফেরত)‌‌: নির্বাক বাংলা ছবি।‌ প্রযোজক ছিলেন ধীরেন্দ্রনাথ গঙ্গোপাধ্যায়। বরিশালের ডেপুটি কালেক্টর ছিলেন তিনি। ছবি পরিচালনা করেছিলে এন সি লাহিড়ি। এই ভারতীয় ছবিতেই প্রথম চুমুর দৃশ্য দেখানো হয়েছিল।
১৯২২ (‌পতি ভক্তি)‌:‌ পরবর্তীকালে তিনি হিন্দি সিনেমার জাঁদরেল শাশুড়ি হয়েছেন। কিন্তু এই ছবিতে চুম্বনের দৃশ্যে অভিনয় করেছিলেন ললিতা পাওয়ার।  
১৯২৯ (‌আ থ্রো অফ ডাইস)‌‌:‌ পরিচালনা করেছিলেন এক জার্মান। মহাভারতের গল্প নিয়ে তৈরি। ছবিতে নায়িকা সীতাদেবী নায়ক চারু রায়কে চুম্বন করেছিলেন।
১৯৩৩ (‌কর্মা)‌:‌ এই ছবিতেই রয়েছে সেই ঐতিহাসিক চুম্বনের দৃশ্য। স্বামী হিমাংশু রায়কে চার মিনিট ধরে পর্দায় চুম্বন করেছেন দেবিকা রানী। ভারতীয় সিনেমার ইতিহাসে দীর্ঘতম চুম্বন। 

জনপ্রিয়

Back To Top