আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ জানলার পর্দা সরালেন। আচমকা দেখলেন খয়েরি গুঁড়ো গুঁড়ো কীসব পড়ে রয়েছে। শুধু জানলায় নয়। ছাদে, বাড়ির বাগানে, রাস্তায়, এমনকী গাড়ির চালেও। এসব কী!‌ মেজাজটা চড়তে যাচ্ছে। তখনই নয় হাতে ঘষে থ। এ যে চকোলেট!‌
বিশ্বাস হয় না?‌ রূপকথার দেশ নয়। এই দুনিয়ারই এক দেশে এ রকম হয়েছে। সুইজারল্যান্ডের অল্টেন শহরে। ১১ আগস্ট সেখানকার বাসিন্দারা রীতিমতো তাজ্জব হয়ে গেছেন। সারা শহরে চকোলেট বৃষ্টি হয়েছে। 
চকোলেট আকাশ থেকে পড়েনি। আসলে ওই শহরে লিন্ড সংস্থার চকোলেট তৈরির কারখানা রয়েছে। সেই কারখানারই ধোঁয়া নিষ্কাশনের ভেন্টিলেশন যন্ত্রটা বিগড়ে গিয়েছিল। তাই দিয়েই কোকোয়া পাউডার বেরোতে থাকে। তার পর হাওয়ায় ভেসে ছড়িয়ে পড়ে শহরে। 
সংস্থা সঙ্গে সঙ্গে জানিয়ে দেয়, কোনও ক্ষতিকারক পদার্থ নয় এগুলো। নেহাতই চকোলেট। তবে এই চকোলেটের গুঁড়ো পড়ে অনেকেরই গাড়ি, বাড়ি, দোকান নোংরা হয়েছে। সেসব পরিষ্কারের খরচ বহন করছে সংস্থাই। তড়িঘড়ি ভেন্টিলেশন যন্ত্র মেরামতও করে দেয় তারা। এত তাড়াহুড়োয় যদিও অল্টেনবাসী একটু দুঃখই পেয়েছে। আরও একটু না হয় খারাপই থাকত!‌ কী এমন ক্ষতি হত?‌ টুইটারে এই আক্ষেপই ঝরে পড়ছে।   

জনপ্রিয়

Back To Top