আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ভারতীয়দের আমপ্রীতির কথা বিশ্ববন্দিত। ফলের রাজার প্রতি এই ভালোবাসা শুধু দেশবাসীরই নয় প্রবাসীদেরও প্রবল। কিন্তু তার জন্য যদি চাকরি, সম্মান খুইয়ে দেশছাড়া হতে হয় কাউকে তাহলে তো সেটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিশ্চয়ই।
ঘটনাটি ঘটেছে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির দুবাইয়ে। দুটি আম চুরির জন্য ২৭ বছরের প্রবাসী ভারতীয় এক যুবককে দুবাইয়ের কোর্ট অফ ফার্স্ট ইনস্ট্যান্স, স্থানীয় সময় সোমবার অবিলম্বে ভারতে ফেরত পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে। দুবাইয়ের মুদ্রায় তাঁর ৫০০০ দিরহ্যাম জরিমানাও করা হয়েছে। যদিও আম দুটির মূল্য মাত্র ৬ দিরহ্যাম।
দুবাই বিমানবন্দরের টার্মিনাল ৩–র কর্মী, ওই যুবকের কাজ ছিল কনভেয়ার বেল্টে যাত্রীদের মালপত্র ওঠানো এবং নামানো। আদালতে তিনি স্বীকার করেছেন, ২০১৭–র ১১ অগাস্ট তিনি এক যাত্রীর মালপত্রের মধ্যে রাখা ফলের বাক্স থেকে তিনি ওই দুটি আম চুরি করেছিলেন। কারণ তাঁর জল তেষ্টা পেয়েছিল। যার বিকল্প হিসেবে কাজ করেছিল আমের রস। বিমানবন্দরের গুদামের সিসিটিভিকে ওই কর্মীকে যাত্রীর বাক্স খুলতে দেখে বিষয়টি বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে জানান এক নিরাপত্তাকর্মী। পুলিসে অভিযোগ দায়ের হলে ২০১৮–র এপ্রিলে পুলিস তাঁকে জেরার জন্য তলব করে এবং গ্রেপ্তার করে। চোরাই মালের সন্ধানে তাঁর বাড়িতেও তল্লাশি হয়েছিল, কিন্তু কিছুই পায়নি পুলিস। এরপর আদালতে ঘটনার কথা স্বীকার করেন ওই কর্মী।
এধরনের সামান্য চুরির জন্য এতো বড় শাস্তির কথা প্রকাশ্যে আসায় সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনা শুরু হয়েছে আমিরশাহি সরকারের বিরুদ্ধে। তবে ওই কর্মীর আগামী ১৫ দিনের মধ্যে রায়কে চ্যালেঞ্জ করে আদালতে আবেদনের সুযোগ আছে বলে জানিয়েছেন আমিরশাহির আইনজীবীরা।
ছবি:‌ গাল্ফ নিউজ       ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top