অলক সরকার, শিলিগুড়ি, ৩০ মে- করোনা নিয়ে উত্তরবঙ্গের যা পরিস্থিতি তাতে, এবারে আর ঘটা করে জগন্নাথের রথযাত্রা হচ্ছে না। পরিস্থিতি কিছুটা পাল্টালেও ভিড় এড়িয়েই রথযাত্রা হবে বলে এদিন অনেকটা স্পষ্ট করেই জানিয়ে দিয়েছেন শিলিগুড়ি ইসকন মন্দিরের সমন্বয়ক নামকৃষ্ণ দাস। করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হলে ইসকন মন্দিরের চত্বরেই কয়েক কদম জগন্নাথের রথ টানা হবে। আর যদি পরিবেশ কিছুটা উন্নত হয়, তাতেও ‘‌লোকে–‌‌লোকারণ্য’ বিষয়টিকেই মুছে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে ইসকন কর্তৃপক্ষ। মানুষ যাতে ভিড় না করেন, তার জন্য রথ থেকে রশিই সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। রাখা হবে না কীর্তনের দল। পরিবর্তে মিউজিক সিস্টেমে বাজানো হবে নামকীর্তন। জগন্নাথকে সম্ভবত কোনও মোটরগাড়িতে বসিয়ে শহর ঘুরিয়ে মাসির বাড়ি রেখে আসা হবে। মানুষ ফুটপাথে সামাজিক দূরত্ব মেনে দাঁড়ালেও স্রেফ এক পলক দেখতে পারবেন। কারও স্পর্শের ইচ্ছা পূর্ণ হবে না। 
উল্লেখ্য, জুন মাসের ২৩ তারিখে জগন্নাথের রথযাত্রা। ৫ জুন স্নানযাত্রা। তার জন্য ফি বছর মে মাস থেকেই প্রস্তুতি শুরু করে দেন ইসকনের কর্মকর্তারা। কিন্তু এবার সেই তৎপরতা নেই। ধরেই নেওয়া হচ্ছে জাঁকজমক করে রথযাত্রা এবার হচ্ছে না। হলেও নম নম করে‌। নামকৃষ্ণ দাস জানান, রাস্তায় রথ নামালে রশি টানার জন্য হুড়োহুড়ি পড়বেই। সেটা এই সময়ে মানুষের জন্য ক্ষতিকরই হবে। তাই রশিযুক্ত রথ নামানো হবে না বলেই ঠিক হয়েছে। যদিও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে ১৫ জুনের পর। কারণ ১৫ তারিখ পর্যন্ত ইসকন বন্ধ থাকবে। রথের পরিবর্তে মারুতি, বোলেরো বা স্করপিও গাড়িতে জগন্নাথদেবকে নিয়ে ঘণ্টায় ২০–‌‌২৫ কিমি গতিতে শিলিগুড়ি শহর ঘোরানো হবে। সেই গাড়িতে রাখা জগন্নাথকে দর্শন করেই এবারে ঘরে ফিরতে হবে বলে মানসিকভাবে তৈরি হতে বলা হচ্ছে। পাশাপাশি রথের মেলাও যে এবারে হওয়ার নয়, তারও নিশ্চিত আভাস পাওয়া যাচ্ছে।

জনপ্রিয়

Back To Top