অলক সরকার,শিলিগুড়ি: পাহাড়ের তৃণমূল নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করলেন রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। পাহাড় তৃণমূলের সাংগঠনিক দায়িত্বেও রয়েছেন অরূপ। লোকসভা ভোটের পর থেকে কীভাবে ঘুরে দাঁড়ানো যায়, কোন কোন বিষয় নিয়ে আন্দোলন করা যায়, সে সব নিয়ে আলোচনা হয়। শিলিগুড়ি পূর্ত দপ্তরের বাংলোয় অনুষ্ঠিত বৈঠকে পাহাড়ের নেতাদের পরিষ্কার নির্দেশ দিয়ে অরূপ বলেন, ‘‌আপনারা সকলে পাহাড়ে ধস–‌বিধ্বস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ান। আগে মানুষ। তারপর সংগঠন।’‌
৬ আগস্ট থেকে দলীয় কাজে উত্তরবঙ্গ সফর করছেন রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার জেলা নেতৃত্বের সঙ্গে আগেই বৈঠক করেছেন। দুই জেলায় সভাপতিও বদল করা হয়েছে। দার্জিলিঙের ক্ষেত্রে অবশ্য সাংগঠনিক রদবদল হয়নি। বৈঠকের পর অরূপ জানিয়েছেন, আমি শিলিগুড়িতে আসায় সবাই দেখা করতে চেয়েছিলেন, তাই বসেছিলাম। তবে সেখানে সকলকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, সবাই যেন বিপর্যয়ের সময় মানুষের পাশে দাঁড়ান। 
উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই টানা বৃষ্টির জেরে পাহাড়ে ব্যাপক ধস হয়। গতকাল আবার বৃষ্টির সঙ্গে ব্যাপক ঝোড়ো হাওয়ায় প্রচুর ক্ষতি হয়েছে। বাড়িঘর ভেঙে গেছে। মানুষও মারা গেছে। ফলে এমন একটা সময়ে, পাহাড়ের তৃণমূল কর্মীরা যাতে দুর্যোগ–‌পীড়িত মানুষের সঙ্গে থাকেন, সেই বার্তা দেওয়া হয়। তবে পার্বত্য তৃণমূলের সভাপতি লালবাহাদুর রাই জানিয়েছেন, এদিনের সভায় মূলত পার্বত্য তৃণমূলের সাংগঠনিক বিষয় নিয়েই আলোচনা হয়েছে।  ২২ জুলাই পাহাড়ের জন্য ৯ জনের কোর কমিটি গঠিত হয়েছে। যার চেয়ারম্যান করা হয়েছে লালবাহাদুর রাইকে। আহ্বায়ক রাজ্যসভার সাংসদ শান্তা ছেত্রি। বাকি সদস্যরা হলেন, সতীশ সিং, মিংমা ভুটিয়া, এন বি খাওয়াস, প্রদীপ প্রধান, আরিফ খান, বিষ্ণু গোলে এবং রাজেন মুখিয়া। শান্তা ছেত্রি ফিরলেই কোর কমিটির প্রথম বৈঠক হবে। 
এল বি রাই জানান, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ মতোই এতদিন পাহাড়ের উন্নয়ন হয়েছে। এবারে আমরা সংগঠনে বেশি করে জোর দেব। মন্ত্রীকে রিপোর্ট দেওয়া হয়েছে। বুথ স্তর থেকে ব্লক স্তরের কমিটি পুরো ঢেলে সাজানোর কথা বলা হয়েছে। আগামী শনিবার কোর কমিটির বৈঠকে বেশকিছু কর্মসূচি নেওয়া হতে পারে। অন্যদিকে, পাহাড়ে মোর্চার কাজকর্ম নিয়ে বিভ্রান্তির সম্ভাবনা প্রসঙ্গে লালবাহাদুর জানান, অন্য কোনও দলের বিষয়ে কোনও আলোচনা হয়নি। 

পিডব্লুডি বাংলোর সামনে অরূপ বিশ্বাসকে স্বাগত জানাচ্ছেন রাজেন মুখিয়া। ছবি:‌ প্রতিবেদক‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top