পার্থসারথি রায়, জলপাইগুড়ি, ২৬ আগস্ট- জামিন না মেলায় গ্রেপ্তারি এড়াতে বিমল গুরুং ও রোশন গিরি দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন। এমন একটা সন্দেহ আগে থেকেই ছিল। এবার রাজ্য সরকার আদালতে জানাল, বিমল গুরুং দেশে নেই। সোমবার কলকাতা হাইকোর্টের জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চে গুরুং–‌মামলার শুনানির সময় রাজ্য সরকারের আইনজীবীদের পক্ষ থেকে এমনই দাবি করা হয়। তবে দেশে না থাকলেও বিমল গুরুং ও রোশন গিরি কোথায় রয়েছেন, তা আদালতে জানানো হয়নি। যদিও এই বিষয়টি নিয়ে সরকারকে আদালতে হলফনামা পেশ করতে বলে বিচারপতি জয়মাল্য বাগচী ও মনোজিৎ মণ্ডলের ডিভিশন বেঞ্চ। পাশাপাশি গুরুংয়ের আইনজীবীদেরও হলফনামা জমা দেওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছে আদালত। 
বিমল গুরুং যে দেশে নেই, সেই হলফনামা আগামী দু’‌সপ্তাহের মধ্যে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে পেশ করতে বলা হয়েছে। পাঁচ সপ্তাহ পর ফের এই মামলার শুনানি হবে বলে জানিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চের বিচারকরা। এছাড়া আইনজীবীদের উভয়পক্ষ চাইলে এই মামলাটি প্রিন্সিপাল বেঞ্চে স্থানান্তরিত করা যেতে পারে বলেও ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়ে দিয়েছে। এদিন বিমল গুরুং ও রোশন গিরিদের তরফে বেশ কয়েকটি মামলায় নতুন করে জামিনের আবেদন করা হলেও তা কার্যকরী হয়নি। সরকার পক্ষের আইনজীবী শাশ্বতগোপাল মুখার্জি বলেন, ‘‌বিমল গুরুং যে দেশে নেই, আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে সেই হলফনামা পেশ করতে বলেছে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। আদালতে পেশ করা হলফনামার পরিপ্রেক্ষিতে পাঁচ সপ্তাহ পর ফের এই মামলার শুনানি হবে।’‌ 
অন্যদিকে, বিমল গুরুং ও রোশন গিরিদের আইনজীবী আনন্দ ভান্ডারি বলেন, ‘‌আদালতে এবার নতুন করে বলা হয়েছে আমাদের মক্কেল ভারতে নেই। এই নিয়ে হাইকোর্টের পক্ষ থেকে হলফনামা পেশের কথা বলা হয়েছে। হলফনামা পেশ করা হলে আমরা এর জবাব দেব।’‌ উল্লেখ্য, গত সোমবার বিমল গুরুং ও রোশন গিরিদের জামিনের আবেদন করা হয়েছিল কলকাতা হাইকোর্টের জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চে। যদিও সেদিন জামিন হয়নি। 

গুরুং মামলার নথি নিয়ে আসা হচ্ছে আদালতে। ছবি:‌ প্রতিবেদক

জনপ্রিয়

Back To Top