মা ও মেয়েকে ধারালো অস্ত্রের কোপ, মৃত তরুণী 

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ১৯ বছরের যুবতী খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল তুফানগঞ্জে। সোমবার রাতে কোচবিহারের বক্সিরহাট থানার অন্তর্গত বারো কোদালী এক নম্বর জিপির তাতিপাড়া এলাকায় দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে মা ও মেয়েকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানোর অভিযোগ উঠল। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় বক্সিরহাট থানার পুলিশ। আহতদের তুফানগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মেয়েকে মৃত ঘোষণা করেন। 
মৃতের নাম অঙ্কিতা সরকার। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। তাঁর মা সান্তনা সরকারকে চিকিৎসার জন্য কোচবিহার মহারাজা জিতেন্দ্র মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সেখানেই অস্ত্রোপচার করা হবে বলে সূত্রের খবর। 
স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, সোমবার রাত্রি দশটা নাগাদ আচমকাই চিৎকার–চেঁচামেচিতে তাঁরা বাইরে এসে দেখেন আক্রান্তদের বাড়ির ভেতর থেকে চিৎকার আসছে। তাঁরা ভেতরে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় মা ও মেয়েকে উদ্ধার করেন। খবর পাঠানো হয় থানায়। এখনও পর্যন্ত অঙ্কিতা সরকারের বাবাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। কে বা কারা এর সঙ্গে জড়িত তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কিছুদিন আগে পকসো আইনে একটি মামলা করেছিলেন অঙ্কিতা সরকারের মা। মামলার প্রধান অভিযুক্ত বর্তমানে জামিনে বাইরে রয়েছে। এই হামলার পিছনে জামিনে অভিযুক্ত ব্যক্তিই জড়িত কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।