অর্ঘ্য দে, শিলিগুড়ি, ২৬ ফেব্রুয়ারি- কেউ বই পড়তে ভালবাসেন, তো কেউ বই দিয়ে ঘর সাজিয়ে রাখতে। কারও আবার গার্ডেনিং করার শখ। কিন্তু আজকালকার ফ্ল্যাট কালচারারের জন্য বাগান পরিচর্যার তেমন জায়গা পাওয়া যায় না। তা ছাড়া এই ব্যস্ততার যুগে এত সময়ই বা কই?‌ সেই সুযোগটাই এবার হাতের মুঠোয় চলে আসছে। ঘরের মধ্যেই বাগান পরিচর্যা করতে পারবেন। আরও ভেঙে বললে বলতে হয়, গোটা বাগানটাই চলে আসবে ছোট্ট কাচের বয়ামের ভেতর। তাতেই মাটি দিয়ে গাছ লাগিয়ে সুন্দর করে সাজিয়ে তুলতে পারবেন জারবন্দি এই বাগান। যা উপহার হিসেবেও দিতে পারবেন বন্ধু, আত্মীয়‌স্বজনকে। জারবন্দি এই বাগানকে ইংরেজিতে বলা হয় ‘‌টেরারিয়াম’‌, অথবা বটল গার্ডেন। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বড় বড় শহরের মানুষ ঘর সাজানোর ক্ষেত্রে এই অ্যাকোয়ারিয়ামের পাশপাশি টেরারিয়ামও ব্যবহার করেন। এবার সেই চল শুরু হতে চলেছে শিলিগুড়ি–সহ গোটা উত্তরবঙ্গেও। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর ফ্লোরিকালচার অ্যান্ড অ্যাগ্রি বিজনেস ম্যানেজমেন্ট (‌‌কোফাম)‌ এই টেরারিয়াম তৈরির প্রশিক্ষণ দেবে। ইতিমধ্যেই পরীক্ষামূলকভাবে শিলিগুড়ির বাগডোগরা এলাকায় এই টেরারিয়াম তৈরি হচ্ছে। এক একটা টেরারিয়াম বিক্রি করে ৫০০ থেকে ২০০০–‌২৫০০ টাকা পর্যন্ত আয় হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। 
কী এই টেরারিয়াম?‌
অ্যাকোয়ারিয়ামে যেমন জলে ভেসে বেড়ায় মাছ, টেরারিয়ামের ক্ষেত্রে কাচের জারের ভেতরে জন্ম নেয় গাছপালা। বেশিটাই ক্যাকটাস, অর্কিড প্রজাতির। স্বচ্ছ কাচের জারে প্রথমে পাথর, বালির লেয়ার দিতে হবে। এর পর উর্বর মাটি ঢালতে হবে। সেই মাটিতে ছোট গাছের চারা লাগিয়ে অল্প পরিমাণ জল দিতে হবে। সেই জল গিয়ে জমা হবে পাথরের লেয়ারে। জারের ওপরটা ঢেকে রাখলে সেই জল ঘণীভূত হয়ে বাষ্প আকারে ওপরে যাবে সেখানে জল হয়ে আবার নিচে নেমে আসবে। এভাবেই ধীরে ধীরে বেড়ে উঠবে কাচের জারের ভেতরে রাখা গাছপালা। কাচের গ্লোবের মধ্যে সুন্দর করে সাজিয়ে রাখলে তা সত্যিই দৃষ্টিনন্দন। কাউকে উপহার হিসেবে তুলে দেওয়ার ক্ষেত্রেও এটি খুব মনোহারী।
কোফামের টেকনিক্যাল অফিসার অমরেন্দ্র পান্ডে জানিয়েছেন, বড় বড় শহরে ফ্ল্যাটে বসবাসকারীরা এই টেরারিয়াম ঘরে সাজিয়ে রাখতে ভালবাসেন। এখানে সেই চল এখনও চালু হয়নি। তবে সিকিম, গ্যাংটকে এর চাহিদা আছে। কোফামের পক্ষ থেকে আমরা শিলিগুড়ির পার্শ্ববর্তী এলাকায় এটা তৈরিতে প্রশিক্ষণ দেব। যেন এখানেও মানুষ এই টেরারিয়ামের ব্যবহার শুরু করে।

এই সেই অভিনব বোতল, যার ভেতর রয়েছে আস্ত একটা বাগান। ছবি:‌ অর্ঘ্য দে

জনপ্রিয়

Back To Top