অম্লানজ্যোতি ঘোষ, আলিপুরদুয়ার: নতুন বছরে মুখ্যমন্ত্রী ঢালাও উপহার দিলেন আলিপুরদুয়ার জেলাকে। স্বাধীনতার পর প্রথম বার আলিপুরদুয়ারে লিজ জমির সমস্যার সমাধান হল। রাজ্যের মডেল প্রশাসনিক ভবন ‘ডুয়ার্স কন্যা’র উদ্বোধন হল। ৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ভবনে একসঙ্গে ৪০টি সরকারি দপ্তর থাকবে। আলিপুরদুয়ার মনোজিৎ নাগ বাস টার্মিনাসের আমূল সংস্কার করে সেটিকে সর্বাধুনিক রূপ দিতে ২৮ কোটি বরাদ্দের কথাও ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। জেলায় একসঙ্গে ১৪০টি নতুন অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের শিলান্যাস হয়েছে। কাজ শেষ হয়েছে আয়ুষ হাসপাতালের। জেলা হাসপাতালে হচ্ছে থ্যালাসেমিয়া ইউনিট। শুধু জেলা নয়, রাজ্য স্তরে আগামীতে ৫ লক্ষ মানুষকে ‘‌বাংলা আবাস যোজনা’‌য় ঘর দেওয়া হবে। ফেব্রুয়ারি মাসে রাজ্যের গ্রামাঞ্চলে নতুন আরও ৭৫০০ কিমি রাস্তা তৈরি হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ৬ বছরে রাজ্যে ৮১ লক্ষ মানুষকে কাজ দেওয়া হয়েছে। সিভিক ভলান্টিয়ারদের থেকে যেমন ১০ শতাংশকে সরাসরি রাজ্য পুলিসে চাকরি দেওয়া হবে, তেমনই প্যারাটিচারদের থেকেও যোগ্য ১০ শতাংশকে শিক্ষকতার চাকরি দেওয়া হবে। উল্লেখ্য, মুখ্যমন্ত্রী এদিন কুমারগ্রামের পারোকাটায় প্রথমেই আলিপুরদুয়ারের জমির বিষয়টি উল্লেখ করায় খুশির হাওয়া ছড়ায়। মুখ্যমন্ত্রী জানান, ১৯৭০ সালের জমি আইন অনুযায়ী লিজ জমির স্বত্ব দেওয়া হবে। ১৯৭০ সালের জমির বাজারদর অনুযায়ী ৯৫ শতাংশ অগ্রিম সেলামিতে জমি লিজ দেওয়া হবে। বার্ষিক খাজনা ধরা হবে মাত্র ০.৩ শতাংশ। দলিল সম্পন্ন করা হবে। বাসিন্দাদের লিজ জমির রেজিস্ট্রেশন নম্বর দেওয়া হবে। ২০০৬ সালের পর থেকে যাঁরা জেলা সদরে থাকছেন তাঁরাও সুবিধা পাবেন। এবার থেকে লিজ জমির স্বত্বাধিকারীরা জমি হস্তান্তর–বন্ধক–বিক্রি–ব্যাঙ্কঋণ সব কিছুর সুবিধা পাবেন। উল্লেখ্য, আলিপুরদুয়ার জেলা সদরের প্রায় ৯০ শতাংশ জমি লিজ জমি। প্রায় ১ লক্ষ মানুষ জেলা সদরের পুরসভা এলাকার ২০টি ওয়ার্ডে রয়েছেন। মাঝে লিজ জমির স্বত্ব নিয়ে জটিলতা তৈরি হয়েছিল। জমির লিজে মূল্য অস্বাভাবিক হারে ধার্য হওয়ায় জেলা সদরের মানুষ বিষয়টিতে উৎসাহ দেখাননি। এদিকে, লিজের বদলে রায়তি স্বত্ব চাইছিল জেলা সদরের একটি বড় অংশের মানুষ। মনে করা হচ্ছে, এবার অদূর ভবিষ্যতে রায়তি স্বত্ব পেতেও অনেকটা এগিয়ে গেল লিজ জমির স্বত্বাধিকারীরা। 
১ টাকায় জমি
আলিপুরদুয়ারের সংবাদমাধ্যমের নির্দিষ্ট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে দ্রুত পদক্ষেপ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়ি, কোচবিহারের পর এবার আলিপুরদুয়ার জেলা প্রেস ক্লাবের জন্য জমি বরাদ্দ করল রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী এদিন পারোকাটায় সরকারি জনসভা শেষে জেলাশাসক দেবীপ্রসাদ করণমকে মাত্র ১ টাকায় সংবাদমাধ্যমের জন্য জমির ব্যবস্থা করে দিতে বলেন। উল্লেখ্য, জেলা প্রেস ক্লাবের অস্থায়ী অফিস থাকলেও এদিন পর্যন্ত স্থায়ী জমি–ভবন ছিল না। খবরটিতে খুশির হাওয়া জেলার সাংবাদিক মহলে। জেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল বড়াল জানান, আমরা গর্বিত। আপ্লুত। মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ। নতুন প্রেস ভবন পরবর্তী প্রজন্মের সাংবাদিকদের সাহায্য করবে। প্রেস ভবনে একটি আধুনিক লাইব্রেরি ও লোকসংস্কৃতি বিভাগ থাকবে। জেলাশাসক জমি চিহ্নিত করে দিলে উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তর সেখানে ভবন নির্মাণ করে দেবে। ‌‌‌

ডুয়ার্স কন্যা ভবন। ছবি: বিজয় দাস

জনপ্রিয়

Back To Top