শুভঙ্কর পাল, শিলিগুড়ি, ৫ মার্চ- টিউশন পড়তে গিয়েছিল। বাড়ির সামনে আসতেই এভাবে ছেলেটার মৃত্যু হবে তা কে জানত!‌ ফেরার সময় দোকান থেকে বিস্কুটও কিনেছিল। সেটাও পড়ে ছিল ঘটনাস্থলে। পাশে রক্ত। শিলিগুড়ির সেন্ট্রাল কলোনির বাসিন্দা অনীত দে (‌১২)‌। স্থানীয় একটি স্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র। বাবা পার্থপ্রতিম দে রেলে কাজ করেন। সোমবার সকালে সাইকেল নিয়ে বাড়ির কাছেই কাশ্মীর কলোনিতে টিউশন পড়তে যায় অনীত। বাড়ির সামনে মেন রোডে হঠাৎ একটি ট্যাঙ্কার ধাক্কা মারে তাকে। সাইকেল নিয়ে রাস্তায় পড়ে যায় অনীত। এরপরই ট্যাঙ্কারের পেছনের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় অনীতের। ছুটে আসেন এলাকাবাসীরা। খবর পেয়ে অনীতের পরিবারের লোকজনও ছুটে আসেন। রাস্তায় ছিন্নভিন্ন হয়ে যাওয়া ছেলের দেহ দেখতে পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন বাবা। ততক্ষণে ট্যাঙ্কার নিয়ে পালিয়ে গেছে চালক। পরে এনজেপি থানার পুলিস এসে দেহ তুলে নিয়ে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে নিয়ে যায়। সেখানে দুপুরে ময়নাতদন্তের পর মরদেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়। 
মৃত ছাত্রের পরিবারের সদস্যরা বলেন, ‘‌দিনরাত রাস্তা দিয়ে দ্রুতগতিতে ট্রাক, ট্যাঙ্কার চলাচল করে। পুলিসকে বিষয়টি জানানো হলেও কোনও পদক্ষেপ করে না। এই উদাসীনতার কারণেই আজ ছেলেকে হারাতে হল। এদিন ঘটনার পর গাড়ির গতি কমানোর জন্য পুলিসের তরফে রাস্তায় ব্যারিকেড দেওয়া হয়।‌

জনপ্রিয়

Back To Top