সব্যসাচী ভট্টাচার্য,শিলিগুড়ি: উত্তরবঙ্গ আজকে অনেক এগিয়ে গেছে, আগামী দিনে উত্তরবঙ্গ উত্তর দেওয়ার জন্য তৈরি থাকুক।‌ শিলিগুড়িতে কালীপুজোর উদ্বোধনের মঞ্চ থেকে এই বার্তাই দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। সঙ্গে তঁার সংযোজন, ‘‌আমরা এনআরসি চাই না। আমরা সিটিজেনশিপ অ্যামেন্ডমেন্ট বিল নিয়ে জাতিগত ভাবে, ভাষাগত ভাবে বিরোধ করতে চাই না।’‌ শিলিগুড়ির প্রধাননগরের বিপ্লব স্মৃতি সঙ্ঘের আহ্বানে সাড়া দিয়ে তঁাদের কালীপুজোর উদ্বোধন করতে রাজি হন মুখ্যমন্ত্রী। এই প্রথম উত্তরবঙ্গে কোনও পুজোর উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী। কার্শিয়াং থেকে শিলিগুড়িতে ফেরার পথেই সরাসরি পুজোমণ্ডপে হাজির হন মুখ্যমন্ত্রী। ফিতে কেটে প্রদীপ জ্বালিয়ে পুজোর উদ্বোধন করেন। মণ্ডপের পাশেই তৈরি ছোট মঞ্চে তখন মু্খ্যমন্ত্রীকে স্বাগত জানানোর আয়োজন করেছেন উদ্যোক্তারা। নিজের ভাষণের পুরোটা জুড়েই মুখ্যমন্ত্রী শান্তি ও ঐক্যের বার্তা দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, ‘‌দুর্গাপুজোয় কোনও ঘটনা ঘটেনি, এর জন্য আমরা গর্বিত। এটাই হচ্ছে বাংলায় সবচেয়ে বড় সাফল্য।’‌ কালীপুজোও একই ভাবে ভাল করে করার আহ্বান জানান তিনি। 
ঐক্যের বার্তা দিতে গিয়ে তিনি জানান, ‌প্রত্যেকটা পুজোতে হিন্দু, মুসলমান, শিখ খ্রিস্টান, জৈন, পারসিক, বৌদ্ধ, নেপালি রাজবংশি, কামতাপুরি সকলেই যোগ দেয়। তেমনই একটা দেশের পরিবারে সকলে থাকে। নিজের বক্তব্যের শেষেই মুখ্যমন্ত্রী তুলে ধরেন এনআরসি প্রসঙ্গ। এই সফরের প্রথম দিনেও শিলিগুড়ি পুলিশ কমিশনারেটের মাঠ থেকে এনআরসি–‌র বিরুদ্ধে বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী। জানিয়ে দেন, রাজ্যে কোনও এনআরসি হচ্ছে না। পরের দিন উত্তরকন্যায় প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী নাকচ করে দেন রাজ্যে ডিটেনশন ক্যাম্প তৈরির সম্ভাবনাও। শিলিগুড়িতে পুজোর মঞ্চ থেকেও তিনি বলেন, ‘‌আমরা চাই বাংলায় সবাই শান্তিপূর্ণ ভাবে, সুন্দর ভাবে বসবাস করবে, কোনও ভেদাভেদ থাকবে না, কোনও হিংসা থাকবে না, কোনও জাতিভেদ থাকবে না, কোনও বর্ণবৈষম্য থাকবে না, কোনও অস্পৃশ্যতা থাকবে না, কোনও সন্ত্রাস থাকবে না।’‌ শেষে মুখ্যমন্ত্রীর আশ্বাস, নিশ্চিন্ত থাকুন, হতাশ হবেন না। এদিন পুজো উদ্বোধনের মঞ্চে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী গৌতম দেব, ইন্দ্রনীল সেন, দার্জিলিঙের জেলাশাসক দীপাপ প্রিয়া পি, এসজেডিএ–র চেয়ারম্যান বিজয়চন্দ্র বর্মন, তৃণমূলের জেলা সভাপতি রঞ্জন সরকার, বিপ্লব স্মৃতি অ্যাথলেটিক ক্লাবের  সভাপতি তথা তৃণমূল কাউন্সিলর নান্টু পাল প্রমুখ।

 

শিলিগুড়ির একটি শ্যামাপুজোর উদ্বোধনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। বৃহস্পতিবার। ছবি: আজকাল

জনপ্রিয়

Back To Top