আজকালের প্রতিবেদন, আলিপুরদুয়ার, ২২ নভেম্বর- আলিপুরদুয়ার জেলার কালচিনি ব্লকের ভাটপাড়া চা–বাগানে বন দপ্তরের পাতা খাঁচায় বন্দি হল পূর্ণবয়ষ্ক স্ত্রী চিতাবাঘ। প্রায় এক মাস এলাকায় ৫টি চা–বাগানে কার্যত মানুষকে অতিষ্ঠ করে তুলেছিল মাদি চিতাবাঘটি। কালচিনি, রায়মাটাং, চুয়াপাড়া, ভাটপাড়া, মেচপাড়া চা–বাগান মিলিয়ে কমবেশি ২০টি গরু, ছাগল, শুয়োর তুলে নিয়ে গিয়েছিল বাঘটি। তবে পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপ হয়ে ওঠে গত সপ্তাহে। 
ভাটপাড়া চা–বাগানের শ্রমিকদের দাবি মেনে বাগান থেকে যোগাযোগ করা হয় বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের হ্যামিলটনগঞ্জ রেঞ্জের আধিকারিকদের সঙ্গে। দু’‌দিন আগেই বাগানের মেন ডিভিশনের ভেতর পাতা হয় খাঁচা। দেওয়া হয় ছাগলের টোপ। শুক্রবার ভোরে তাতে ধরা পড়ে চিতাবাঘ। স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান এস গুরুং জানান, ভাটপাড়া চা–বাগানে যেখানে জঙ্গল হয়ে আছে সেখানেই আশ্রয় নেয় বাঘ। আশপাশের বাগানগুলোতেও চা–গাছের ঝোপে লুকিয়ে থাকে বাঘ। শ্রমিকদেরকে বিপদের মধ্যে কাজ করতে হয়। 
বন দপ্তরের পানা রেঞ্জের রেঞ্জ অফিসার আশিস মণ্ডল জানান, কিছুদিন যাবৎ ভাটপাড়া চা–‌বাগানে একটি চিতাবাঘ উপদ্রব করছিল। খাঁচা বসানো হয়। গতকাল রাতে খবর আসে যে বাঘটি খাঁচাবন্দি হয়েছে। খাঁচাবন্দি বাঘটিকে বন দপ্তর উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য রাজাভাতখাওয়াতে নিয়ে যায়। ঘটনার জেরে কিছুটা হলেও স্বস্তি ফিরেছে ৫ চা–বাগানে।

খাঁচার মধ্যে বন্দি হওয়া চিতাবাঘটি। ছবি:‌ অম্লানজ্যোতি ঘোষ‌

জনপ্রিয়

Back To Top