আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি ই–স্কুটিতে চেপে হাজরা থেকে নবান্ন যান মমতা। একইভাবে নবান্ন থেকে হাজরা ফেরেন। দিদির এই কর্মকাণ্ডকে রবিবারই ব্রিগেডে কটাক্ষ করেছেন নরেন্দ্র মোদি। এই পরিস্থিতিতে বেঙ্গালুরু শহর থেকে সামান্য দূরে তৈরি হতে চলেছে পৃথিবীর বৃহত্তম ইলেকট্রিক স্কুটার তৈরির কারখানা। ৫০০ একর জমির উপর এই কারখানা তৈরি করতে চলেছে অ্যাপ ক্যাব সংস্থা ওলা। ইতিমধ্যে সেই বিশাল জমি ঘুরেও দেখেছেন ওলা–র কর্ণধার ভাবিশ আগরওয়াল। তাঁর আশা, আগামী ১২ সপ্তাহের মধ্যে এই কারখানা তৈরি করে ফেলা সম্ভব হবে। বছরে প্রায় ১ কোটি ই–স্কুটার তৈরি হবে এই কারখানায়। এমনকি প্রতি ২ সেকেন্ডে নাকি তৈরি হবে একটি ই–স্কুটার। 
বেঙ্গালুরু শহর থেকে আড়াই ঘণ্টার যাত্রাপথের দূরত্বে অবস্থিত এই বিশাল অঞ্চল। এই কারখানা তৈরি করতে খরচ হবে প্রায় ৩৩ কোটি মার্কিন ডলার, ভারতীয় মূদ্রায় ২৪১৬ কোটি টাকার বেশি। শেষ ১০ বছর ধরে ভারতের পথে যাত্রী পরিবহণের বাণিজ্যে উল্লেখযোগ্য সাফল্য পেয়েছে ওলা। পৌঁছে গিয়েছে বাণিজ্যের শিখরে। সেই সংস্থাই এ বার সরাসরি গাড়ি তৈরির ব্যাবসায় আসতে চলেছে। ভাবিশ মনে করছেন, প্রধানমন্ত্রীর ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ স্বপ্নের এক আদর্শ বাস্তবায়ন হতে চলেছে এই কারখানার মাধ্যমে। শুধু ভারতে নয়, কম দামে সারা পৃথিবীতে ই–স্কুটার পৌঁছে দেবে ওলা ইলেকট্রিক।
ওলা–র এই কারখানার নাম দেওয়া হয়েছে ‘ওলা ইলেকট্রিক মোবিলিটি প্রাইভেট’। সংস্থার আশা, এই কারখানা বছরে ১ কোটি ই–স্কুটার তৈরি করতে পারে। ওলা চাইছে, এই বছরের শেষ থেকেই কারখানার উৎপাদন প্রক্রিয়া শুরু করে দিতে। 

জনপ্রিয়

Back To Top