আজকাল ওয়েবডেস্ক: আর মাত্র চারদিন বাকি। তারপরই দেশের সাধারণতন্ত্র দিবস। এই সাধারণতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে দিল্লিতে ঘটে গেল চাঞ্চল্যকর ঘটনা।‌ দিল্লির জামা মসজিদ মেট্রো স্টেশনে তাজা কার্তুজ–সহ ধরা পড়ল মধ্যবয়সি এক মহিলা। কেন তার কাছে তাজা কার্তুজ?‌ কী করে এল তার কাছে তাজা কার্তুজ?‌ তাহলে কী হামলা করার ছক ছিল?‌ এই সব প্রশ্ন এখন ঘুরপাক খাচ্ছে দিল্লি পুলিশ কর্তাদের মস্তিষ্কে।
পুলিশ সূত্রে খবর, মহিলার সঙ্গে থাকা ব্যাগে লুকনো ছিল তাজা দুটি কার্তুজ। স্টেশনে ঢোকার মুখে, চেকিং পয়েন্টে স্ক্যানারে ধরা পড়ে যায় লুকনো কার্তুজ। তার পরেই ৪৬ বছরের ওই মহিলাকে আটক করে সিআইএসএফ। পরে দিল্লি পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।
ডিসিপি (মেট্রো) বিক্রম পরোওয়াল জানান, ধৃত মহিলা জেরায় জানান, তাজা কার্তুজগুলি তার এক আত্মীয়ের। ওই আত্মীয় তাদের বাড়িতে এসে ফেলে গিয়েছিলেন। তার পর, সেগুলি ব্যাগেই রাখা ছিল। তিনি আদৌ সত্যি বলছেন কি না, পুলিশ তা খতিয়ে দেখছে। ধৃত মহিলার বাড়ি উত্তরপ্রদেশের মথুরা জেলায়। 
মেট্রো রেল সূত্রে খবর, জামা মসজিদ মেট্রো স্টেশনের এক্স–রে স্ক্রিনিংয়ে তার লাগেজের ভেতরে দুটি বুলেট দেখা গিয়েছে। সিআইএসএফ তাকে আটক করে, পুলিশের হাতে তুলে দিলে, তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। নয়ডার এক হাসপাতালে তার ভাশুরপোর চিকিত্‍‌সা চলছিল। সোমবার তাঁর মৃত্যু হয়। সেই মৃত্যু সংবাদ পেয়েই মথুরা থেকে তড়িঘড়ি দিল্লি পৌঁছন। জামা মসজিদ মেট্রো স্টেশন থেকে ট্রেন ধরে নয়ডা যাওয়ার কথা ছিল বলে মহিলার বয়ান। 

জনপ্রিয়

Back To Top