আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‘‌ধর্ষণের রাজধানী’‌ হয়ে উঠেছে উন্নাও। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে নভেম্বর অবধি উন্নাওয়ে ৮৬টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। আর যৌন নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে ১৮৫টি। সমীক্ষায় এমনই ভয়াবহ তথ্য উঠে এসেছে। আর তারপর থেকেই উন্নাওকে বলা হচ্ছে ‘‌ধর্ষণের রাজধানী।’‌ 
যোগী আদিত্যনাথ ক্ষমতায় আসার পর থেকেই উত্তরপ্রদেশে বেড়েছে নারী নির্যাতনের সংখ্যা। উন্নাও তার বড় প্রমাণ। ৩১ লক্ষ মানুষের বসবাস উন্নাওয়ে। লখনউ থেকে উন্নাওয়ের দূরত্ব ৬৩ কিলোমিটার। আর কানপুর থেকে দূরত্ব ২৫ কিলোমিটার। 
বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সেঙ্গার ধর্ষণের ঘটনায় জড়িয়েছেন। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে এক নির্যাতিতাকে গায়ে আগুন দেওয়া হয়েছে। সেই নির্যাতিতা শুক্রবার রাতে মারা গেছেন। উন্নাওয়ের অশোহা, আজগাইন, মাখি, বাঙ্গারমুতে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে সবচেয়ে বেশি। সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য হল অভিযুক্তরা বেশিরভাই ক্ষেত্রেই জামিন পেয়ে গেছেন। তারপর থেকেই যোগী আদিত্যনাথ সরকারের উপর ক্ষোভ বেড়েছে নির্যাতিতার পরিবারের। উন্নাও কাণ্ডে নির্যাতিতা মারা যাওয়ার পর তাঁর বাবা সরাসরি যোগী আদিত্যনাথ সরকারকে কাঠগড়ায় তুলেছেন। স্থানীয় মানুষ থেকে মানবাধিকার কমিশনও উত্তরপ্রদেশ পুলিশের নিষ্ক্রিয়তায় সোচ্চার হয়েছেন বারবার। 

জনপ্রিয়

Back To Top