Muder: ভাড়াটে খুনি দিয়ে স্বামীকে হত্যা! গ্রেপ্তার স্ত্রী, প্রেমিক এবং হত্যাকারী 

আজকাল ওয়েবডেস্ক: স্বামীকে হত্যার দায়ে গ্রেপ্তার হল স্ত্রী এবং তার প্রেমিক এবং আরও একজন।

এই ঘটনা মধ্য দিল্লির দরিয়াগঞ্জ এলাকার। অভিযুক্তদের নাম জিবা কুরেশি (৪০), শোয়েব (২৯) এবং বিনীত গোস্বামী (২৯)। জিবা দরিয়াগঞ্জের বাসিন্দা, শোয়েব উত্তরপ্রদেশের মিরাটের এবং বিনীত গাজিয়াবাদের বাসিন্দা। 
স্বামী মইনুদ্দিন কুরেশির (৪৭) সঙ্গে আর থাকতে চাইছিল না জিবা। গত ১৭ মে দরিয়াগঞ্জের খালসা স্কুলের গেটের সামনে রাত ১০টা নাগাদ কেউ বা কারা গুলি করে খুন করে। খুনের তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ জানতে পারে, খুনিরা উত্তরপ্রদেশ। খুনের সময় ব্যবহৃত সাদা রঙের মোটরবাইকের সূত্র ধরেই এই তথ্য হাতে আসে। বাইকটিকে পরিত্যক্ত অবস্থায় দরিয়াগঞ্জের তারা হোটেলের কাছে পাওয়া যায়। 

 

আরও পড়ুন: মুক্ত আরিয়ান, মন্তব্যই করতে চাইলেন না তাঁকে গ্রেপ্তার করা সমীর ওয়াংখেড়ে​ 


আরও তদন্ত করে শেষ পর্যন্ত তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। দিল্লির (সেন্ট্রাল) ডেপুটি পুলিশ কমিশনার শ্বেতা চৌহান জানিয়েছেন, মইনুদ্দিন খুনে জড়িত তাঁর স্ত্রী জিবাও। মইনুদ্দিনের সঙ্গে আর সংসার করার ইচ্ছে ছিল না জিবার। তাকে সরিয়ে দিয়ে অন্য আরেকজনকে বিয়ে করতে চেয়েছিল জিবা। এই অন্য আর এক জন তার চেয়ে প্রায় ১০ বছরের ছোট শোয়েব, যার সঙ্গে দু’বছর আগে ফেসবুকে আলাপ হয়। 
পাঁচ মাস ধরে মইনুদ্দিনকে খুনের ছক কষে জিবা এবং শোয়েব। শোয়েবই বিনীত গোস্বামীকে খুন করতে ভাড়া করে। এরজন্য পারিশ্রমিক দেওয়া হয়েছিল ৬ লক্ষ টাকা। বেশ কয়েকবার চেষ্টা করে ব্যর্থ হলেও অবশেষে মইনুদ্দিনকে দুনিয়া থেকে সরানোর পরিকল্পনা সফল হয় জিবা-শোয়েবের।     
 

আকর্ষণীয়খবর