আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ শনিবার সকাল সাড়ে দশটায় অযোধ্যা মামলার রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট। এই মামলার শুনানি শেষ হলেও রায়দান এতদিন স্থগিত ছিল। প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ১৭ নভেম্বর তাঁর অবসরের আগে সুপ্রিম কোর্টের রায় ঘোষণা করবেন, এই কথা জানা ছিল। কিন্তু হঠাত্‍ করে ৯ নভেম্বর দিনটিকেই কেন রায় ঘোষণার জন্য বেছে নেওয়া হল?
যদিও আদালত সপ্তাহের যে কোনও দিনই বসতেও পারে এবং রায় ঘোষণাও করতে পারে, তবু সাধারণত কোনও গুরুত্বপূর্ণ মামলার রায় ছুটির দিনে দেওয়া হয় না। ১৭ নভেম্বর যেহেতু রবিবার পড়ছে, তাই তার আগেই কোনও একটা দিনে অযোধ্যা মামলার রায় প্রকাশিত হওয়াটাই স্বাভাবিক ছিল। ১৬ নভেম্বর শনিবার হওয়ায় বিচারপতি গগৈ এর শেষ কাজের দিন হল ১৫ নভেম্বর। সেই কারণেই মনে করা হয়েছিল যে ১৪ বা ১৫ নভেম্বর অযোধ্যা মামলার রায় প্রকাশিত হতে পারে।
অনেক সময় রায় প্রকাশের পরে কোনও এক পক্ষ ফের তা খতিয়ে দেখার আবেদন করেন। সেই প্রক্রিয়া শেষ হতেও আরও দু–একদিন সময় লেগে যায়। তবু ঘটনা হল সুপ্রিম কোর্ট না সরকার কেউই এমন কোনও ইঙ্গিত দেয়নি, যাতে মনে হয় যে অযোধ্যা মামলার রায় ১৪ নভেম্বরের আগে প্রকাশিত হতে পারে। শুক্রবার রাতে আচমকাই শনিবার রায় বেরোবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়। মনে করা হচ্ছে, অযোধ্যা রায়কে ঘিরে অসামাজিক কাজকর্ম ঠেকাতেই আচমকা রায়দানের ঘোষণা। ষড়যন্ত্রমূলক কোনও কাজকর্ম যাতে না হতে পারে, তাই শনিবার রায়দান করল সুপ্রিম কোর্ট। 

জনপ্রিয়

Back To Top