আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ টেলিকম সংস্থাগুলির বিপুল পরিমাণ টাকা বকেয়া রয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে। সেই বকেয়া টাকার পরিমাণ ১.‌৪৭ লক্ষ কোটি টাকা। এবার এই বকেয়া টাকা না দেওয়া নিয়ে টেলিকম সংস্থাগুলিকে চরম ভর্ৎসনা করল সুপ্রিম কোর্ট। একইসঙ্গে টেলিকম সংস্থাগুলির শীর্ষ আধিকারিককে সমন পাঠিয়ে বকেয়া রাখার কারণ তলব করেছে দেশের সর্বোচ্চ আদালত। 
শুক্রবার বিচারপতি অরুণ মিশ্র সতর্ক করে জানিয়ে দিয়েছে টেলিকম সংস্থাগুলিকে এবং সরকারি আধিকারিকদের যে, আদালতের নির্দেশ অমান্য করলে অবমাননাকর মামলা চালু হয়ে যাবে। তখনই তিনি ক্ষুব্ধ হয়ে বলেন, ‘‌আমরা জানি না কে এই ধরণের অপদার্থতা তৈরি করেছে। দেশে কী কোনও আইন নেই। এটা অনেক ভাল এই দেশে বসবাস না করে দেশ ছেড়ে চলে যাওয়া।’‌ সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের এই ক্ষোভ চাপে ফেলে দিয়েছে টেলিকম সংস্থাগুলিকে বলে মনে করা হচ্ছে। 
বিচারপতি অরুণ মিশ্রের বেঞ্চে ছিলেন বিচারপতি এস আবদুল নাজির এবং বিচারপতি এম আর শাহ। তাঁরাও ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে বলেন, ‘‌সুপ্রিম কোর্টের কী কোনও মূল্য নেই?‌ অর্থের ক্ষমতায় বেরিয়ে আসা যায়। এইসব টেলিকম সংস্থাগুলি একটা পয়সা শোধ করেনি। আর তাঁদের অফিসারদের কি সাহস!‌ আদালতের রায়ের ওপর স্থগিতাদেশ চাইছে।’‌ এরপরই শীর্ষ আদালত টেলিকম সংস্থা ভারতী এয়ারটেল, ভোডাফোন, এমটিএনএল, বিএসএনএল, রিলায়েন্স কমিউনিকেশন, টাটা কমিউনিকেশন সংস্থাগুলিকে আগামী ১৭ মার্চ আদালতে হাজির থাকার নির্দেশ দিয়েছে। আর কেন্দ্রকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তারা যে সুবিধা দিয়েছে টেলিকম সংস্থাগুলিকে তা অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে। 

জনপ্রিয়

Back To Top