আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আধার কোনও ভাবেই বাধ্যতামূলক করা যাবে না। কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে অনেকদিন ধরেই সরব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। আধার বাধ্যতামূলক করার কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তের বিরোধিতায় এবার সুপ্রিমকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে রাজ্য সরকার। সেই মামলার শুনানিতেই বুধবার সুপ্রিমকোর্টের পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চে মামলাটি ওঠে। বেঞ্চের নেতৃত্বে ছিলেন প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র। সেখানে রাজ্য সরকারের আইনজীবী কপিল সিবাল বলেন, আমরা সকলেই ভারতীয় এর মধ্যে কোনও সন্দেহ নেই, কাজেই তার জন্য আমাদের আলাদা করে পরিচয়পত্র তৈরির কোনও প্রয়োজনই। ভোটার কার্ডই যথেষ্ট। এটা একটা রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত বলেও দাবি করেছেন কপিল সিবাল। আরও তথ্য পেশ করে কপিল সিবাল বলেন, এই আধার কার্ডের জন্য ব্যক্তিগত তথ্য প্রকাশ্যে চলে আসছে। সাধারণ মানুষের কোনও গোপনীয়তা রক্ষা করা হচ্ছে। এটা তাঁদের মৌলিক অধিকারের মধ্যে পড়ে। ব্রিটেন পর্যন্ত এই ধরনের বায়োমেট্রিক পরিচয় পত্র তুলে নিচ্ছে। আধার বাধ্যতামূলক করার কোনও প্রয়োজনীয়তা নেই বলে আদালতকে জানান সিবাল। 
রাজ্য সরকারের আইনজীবীর সওয়ালের প্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র বলেন, ভারতীয় হিসেবে সরকার যদি এক দেশ এক পরিচয়ের নীতি নিতে চায় তাতে দোষের কোথায়। বিশ্বের সর্বত্র এভাবেই নাগরিকদের পরিচয় পত্র তৈরি হয়। 

জনপ্রিয়

Back To Top