‌‌সংবাদ সংস্থা, দিল্লি: সুস্থ ব্যক্তিদের মাস্কের দরকার নেই। এতদিন বলছিল ‘‌আইসিএমআর’–‌‌সহ নানা সংস্থা, বিশেষজ্ঞরা। আজ সুস্থ লোকজনকেও মাস্ক পরতে বলল সরকার। তবে ঘরোয়া মাস্ক, যা সহজেই বাড়িতে বানানো যায়। তবে কী সংক্রমণ আরও ভয়াবহ আকার নিচ্ছে?‌ সেই বিষয়ে খোলসা করেনি সরকার। জানিয়েছে, জনগোষ্ঠীর মধ্যে উন্নত ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতার অভ্যাস করতেই তাদের নির্দেশিকা।
এর আগেই পুরনো টি–‌‌শার্ট, গেঞ্জি, সুতি দিয়ে কাজ চালানোর মতো মাস্ক তৈরি শিখিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। আজ জানিয়েছে, কোনও কাজে বাড়ির বাইরে গেলে সুস্থ ব্যক্তিরাও যেন ঘরে তৈরি মাস্ক ব্যবহার করেন। নির্দেশিকায় একেকজনকে দু‌টি করে বাড়িতে তৈরি মাস্ক মজুত রাখতে বলেছে সরকার। প্রতিবার ব্যবহারের পর তা গরম জল এবং সাবান দিয়ে কেচে নিতে বলেছে। এবং ভাল করে হাত ধুয়ে মাস্ক পরতে বলেছে। 
সর্দি, কাশি হলে সাধারণ সার্জিক্যাল মাস্ক পরার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। আর যাঁরা করোনা–‌আক্রান্ত বা ওই রোগের উপসর্গ দেখা দিয়েছে, এমন রোগীদের চিকিৎসা ও শুশ্রূষা করছেন, তাঁদের জন্য নির্দিষ্ট মাস্কের কথা বলা হয়েছে। ঘরে তৈরি মাস্ক তাঁদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (‌হু)‌ অবশ্য এখনও বলছে, আক্রান্তদের চিকিৎসার দায়িত্বে থাকলেই মাস্ক পরতে হবে। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top