আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ হাতে তরোয়াল। গাড়ির বনেটে রাখা কেক। পাশে বিয়ারের বোতল। হঠাৎই সবাই হ্যাপি বার্থডে বলে শুভেচ্ছা জানাল। একের পর এক বিয়ারের বোতল খুলল। যাঁর জন্মদিন তাঁকে সেই বিয়ারে কার্যত স্নান করানো হল। এরপর তরোয়াল দিয়ে কেক কাটা। শূন্যে গুলি চালানো। মাস্ক না পরে সামাজিক দূরত্বের তোয়াক্কা না করে সবই চলল। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এই ভিডিও। যেখানে গোটা দেশ যেখানে করোনার মতো মহামারীর সঙ্গে লড়াই করছে, সেখানে এভাবেই জন্মদিনের পার্টিতে মত্ত খোদ প্রধানমন্ত্রী রাজ্য গুজরাটের যুব মোর্চার নেতা। জানা গিয়েছে, ঘটনাটি মহিষাগরের। যোগেন্দ্র মেহরা নামে দলেরই এক সদস্য ওই জন্মদিনের পার্টির আয়োজন করেছিলেন বলে খবর। ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে। বিরোধী দল থেকে নেটিজেন–সবাই সমালোচনায় মুখর হয়েছেন।
একে গুজরাটে হু হু করে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। তারপর সে রাজ্যে মদ নিষিদ্ধ। অর্থাৎ ওই যুব নেতা শুধু মাস্ক না পরা বা সামাজিক দূরত্ব না মানার পাশাপাশি আরও বেশ কিছু নিয়ম ভেঙেছেন। বিজেপির যুব নেতা না হয়ে অন্য কেউ হলে কী হত?‌ সেই প্রশ্নই এখন উঠছে। 

 


 

জনপ্রিয়

Back To Top