আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিয়েতে রাজি না হওয়ায় মেয়ে ও মা–কে কুপিয়ে খুন করা হল উত্তরপ্রদেশ। রবিবার রাতে আগ্রা জেলায় ঘটেছে ওই ঘটনা। পুলিশ সূত্রে খবর, ১৯ বছরের ওই তরুণীকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিল এক ব্যক্তি। রাজি না হওয়ায় ওই তরুণী ও তাঁর মায়ের উপর হামলা চালিয়ে কুপিয়ে খুন করে সে। ঘটনায় গুরুতর জখম হয়ে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ওই পরিবারেরই এক আত্মীয়। 
স্থানীয়দের বক্তব্য, ওই তরুণী ও ওই ব্যক্তির বন্ধুত্ব নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে অনেকদিন ধরেই বিবাদ চলছিল। ঘটনার সপ্তাহ দুয়েক আগেই মেয়েটির অন্য জায়গায় বিয়ে ঠিক হয়। আগ্রার ইন্সপেক্টর জেনারেল সতীশ গণেশ জানান, ‘‌তদন্তে জানা গেছে, অভিযুক্তের নাম গোবিন্দ। যেখানে ঘটনাটি ঘটেছে, সেখান থেকে মাত্র ৫০ মিটার দূরেই তার বাড়ি। মেয়েটি বিয়ে করতেই রাজি না হওয়ায় রাগে খুন করেছে বলেই জানা যাচ্ছে। কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শীরও খোঁজ পেয়েছি আমরা। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করতে পাঁচ সদস্যের একটি টিম তৈরি করেছে পুলিশ।’
২০১৯ সালের ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরোর রিপোর্ট বলছে, মহিলাদের উপর অপরাধের নিরিখে দেশে শীর্ষে রয়েছে যোগী রাজ্য উত্তরপ্রদেশ। শুধু তাই নয়, নাবালিকাদের উপর অপরাধের জন্য পকসো ধারায় সব চেয়ে বেশি মামলা দায়ের হয়েছে উত্তরপ্রদেশেই। প্রসঙ্গত, সম্প্রতি বাংলা সফরে এসে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ মন্তব্য করেছিলেন, ‘‌বাংলায় মহিলাদের সুরক্ষা নেই।’ পাল্টা জবাবে মালদার জেলা তৃণমূল সভাপতি মৌসম নুর বলেন, ‘উত্তরপ্রদেশে মহিলারা কতটা সুরক্ষিত, হাথরসে মহিলা নির্যাতনের ঘটনাই দেশবাসীর চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে।’‌ ‌   ‌   

জনপ্রিয়

Back To Top