আজকাল ওয়েবডেস্ক: ‌লোকসভা ভোটের আগে বড় ধাক্কা খেল বিজেপি। দলের মধ্যে অস্বস্তি বাড়িয়ে বিজেপি ছাড়লেন সাংসদ সাবিত্রী বাই ফুলে। তবে দল ছাড়ার আগে বিজেপিকে কটাক্ষ করে সাংসদ বলেন, ‘‌দেশের অর্থ উন্নয়নের কাজে না লাগিয়ে তা মূর্তি তৈরিতে অপব্যয় হচ্ছে।’‌ সাবিত্রী বাই ফুলে বিজেপির এরকম কাজে বেশ অসন্তুষ্ট। এর আগেও এই সাংসদ বহু বিতর্কিত মন্তব্য করে শিরোনামে এসেছেন।
সাবিত্রী বাই অভিযোগ করে জানান, বিজেপি সমাজের মধ্যে বিভেদ তৈরি করছে। তিনি বলেন, ‘‌আমি একজন সমাজকর্মী। দলিতদের হয়ে আমি কাজ করি। বিজেপি দলিত সংরক্ষণের জন্য কোনও কাজ করেনি।’‌ বাহরিচের সাংসদ বৃহস্পতিবারই তাঁর দল ছাড়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হনুমান নিয়ে মন্তব্য করার পর মঙ্গলবার সাংসদ জানিয়েছিলেন যে, ভগবান হনুমান একজন দলিত সম্প্রদায়ের এবং তিনি মানুওয়াড়ি মানুষের সেবক ছিলেন। সাবিত্রী বাই বলেন, ‘‌ভগবান হনুমান একজন দলিত এবং মানুওয়াড়ি মানু্ষের সেবক ছিলেন। তবে তিনি একজন মানুষও বটে। তিনি ভগবান শ্রী রামের জন্য সব করেছেন। তাহলে কেন হনুমানের লেজ ও মুখ পুড়িয়ে দেওয়া হলো?‌ হনুমান সবসময় রামের পাশে দাঁড়ালেও রাম কেন তাঁকে মর্যাদা দেননি? তাঁকে কেন বাঁদরের প্রজাতিতে রাখা হলো?‌’‌ এর আগেও সাবিত্রী বাই ফুলে বিজেপি নেতাদের দলিতদের সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজ করা নিয়ে সমালোচনা করেছেন। 
চলতি বছরের মে মাসে পাকিস্তানের প্রতিষ্ঠাতা তথা ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামী মহম্মদ আলি জিন্নাকে ‘‌মহাপুরুষ’‌ বলায়, বিজেপির রোষের মুখে পড়তে হয়েছিল সাংসদকে।    


‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top