Budget Highlights: ‌বাজেটের যে গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা না জানলেই নয়

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ মঙ্গলবার ২০২২-‌২৩ অর্থবর্ষের বাজেট পেশ করলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।

যদিও কেন্দ্রের এই বাজেট নিয়ে বিরোধীরা ইতিমধ্যেই সুর চড়িয়েছেন। তবে এই সাধারণ বাজেটে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী। এবার সেগুলির দিকে নজর রাখা যাক।  

আয়কর কাঠামো অপরিবর্তিত:‌ আশা থাকলেও আয়কর ছাড়ের ঊর্ধ্বসীমায় তেমন কোনও ছাড় মিলল না। আগের কর কাঠামোই বলবৎ থাকবে। সাধারণ মানুষের ৫ লক্ষ অবধি বার্ষিক আয়ে ছাড় মিলবে।

কর্পোরেট ট্যাক্স ও সার চার্জ হ্রাস:‌ কর্পোরেট ট্যাক্স ১৮ থেকে কমিয়ে ১৫ শতাংশ করা হল। অন্যদিকে সার চার্জ ১২ শতাংশ থেকে কমিয়ে করা হল ৭ শতাংশ। পাশাপাশি দীর্ঘমেয়াদি মূলধনী লাভে ১৫ শতাংশ কর দিতে হবে।

আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার সময় বেড়ে ২ বছর:‌ আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার সময় বাড়ল ২ বছর। ভুল সংশোধন করে করদাতারা দু’বছরের মধ্যে রিটার্ন ফাইল করতে পারবেন। 

কর্মসংসংস্থান:‌ কৃষি ও পরিকাঠামো উন্নয়নে জোর দেওয়া হয়েছে। যার ফলে প্রায় সব ক্ষেত্র মিলিয়ে আগামী পাঁচ বছরে ৬০ লক্ষ কর্মসংস্থান হবে বলে ঘোষণা করেছেন নির্মলা সীতারামন।

৫জি পরিষেবা:‌ চলতি বছরেই ভারতে চালু হবে ৫-‌জি পরিষেবা।  এর ফলে টেলিকম জগতে প্রচুর কর্মসংস্থান হবে বলেও সংসদে বক্তৃতায় বলেন তিনি। তার জন্য এই বছরেই ‘স্পেকট্রাম’ নিলাম হবে।

ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়:‌ ভারতে চালু হবে ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়। প্রথম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার জন্য টিভি চ্যানেল তৈরি করবে কেন্দ্র। শিক্ষকদের ডিজিটাল পদ্ধতিতে পড়নোর প্রশিক্ষণও দেওয়া হবে। এর জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীও দেওয়া হবে।

ই-‌পাসপোর্ট:‌ ভারতে চালু হবে ই-‌পাসপোর্ট। মাইক্র-‌চিপ চালু থাকবে সেটিতে। সেখানেই সব তথ্য থাকবে। যার ফলে আরও সহজ হবে বিদেশ সফর।

সস্তা-‌মহার্ঘ:‌ পোশাক, জুতো, বিদেশ থেকে আনা যন্ত্র, কৃষিজাত যন্ত্রপাতি, হিরে, মোবাইল ফোন, চার্জার ইত্যাদির দাম কমল। দাম বাড়ল ইস্পাত সামগ্রী, বিদেশি ছাতা ইত্যাদির।

ক্রিপ্টোকারেন্সিতে কর:‌ এবার থেকে ক্রিপ্টোকারেন্সি থেকে আয়ে দিতে হবে ৩০ শতাংশ কর। ভার্চুয়াল, ডিজিটাল মুদ্রা বিক্রি বা অধিগ্রহণ থেকে আয়ের ওপর ৩০ শতাংশ কর দিতে হবে। পাশাপাশি আরবিআই-এর অধীনে দেশে ডিজিটাল মুদ্রা চালু করা হবে।

৭৫ জেলায় ৭৫ ডিজিটাল ব্যাঙ্কিং ইউনিট:‌ দেশের স্বাধীনতার ৭৫ বছরের জন্য ৭৫টি জেলায় ৭৫টি ডিজিটাল ব্যাঙ্কিং ইউনিট তৈরি করা হবে। পাশাপাশি দেড় লক্ষ পোস্ট অফিসকে কোর ব্যাঙ্কিংয়ে যুক্ত করা হবে।

MSME‌-‌র জন্য বাড়তি বরাদ্দ:‌ ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পকে উৎসাহ দিতে বাড়তি ২ লক্ষ ৭৩ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

স্টার্টআপ সংস্থাদের ছাড়:‌ নির্মলা সীতারামন বলেন, স্টার্টআপ ভারতের ভবিষ্যতের জন্য দিশা দেখিয়েছে। আরও এক বছরের জন্য করছাড়ের উৎসাহ দেওয়া হচ্ছে।

আরও পড়ুন:‌ চলতি বছরেই ভারতে চালু হবে 5G ‌পরিষেবা, ঘোষণা নির্মলার

 

আকর্ষণীয়খবর