আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ট্রেনে আসন নিয়ে বচসা। যা গড়াল মারামারিতে। তার জেরে প্রাণ গেল এক যাত্রীর। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাতে মুম্বই–লাতুর–বিদার এক্সপ্রেসে। জানা গেছে, কল্যাণের বাসিন্দা সাগর মারকান্ড (‌২৬)‌ বুধবার গভীর রাতে ট্রেনে উঠেছিলেন স্ত্রী জ্যোতি ও দুই বছরের শিশুকন্যাকে নিয়ে। জেনারেল কামরা ছিল ভিড়ে ঠাসা। বসার আসন ছিল না। সাগর তখন কামরায় থাকা বাকি মহিলা যাত্রীদের অনুরোধ করেন, তাঁর স্ত্রী ও কন্যাকে বসার জায়গা দেওয়ার জন্য। কিন্তু হাজার অনুরোধেও কাজ হয়নি। আচমকা এক মহিলা তর্ক শুরু করেন মারকান্ডের সঙ্গে। কামরায় থাকা বাকি মহিলা ও পুরুষ যাত্রীরা এরপর ঘিরে ধরেন মারকান্ডকে। মারধর শুরু হয়। চড়, লাথি মারা হয় মারকান্ডকে। স্ত্রী জ্যোতির অনুরোধেও থামেননি বাকি যাত্রীরা। প্রায় একঘণ্টা ধরে মারধর করা হয় সাগরকে। এরপর ট্রেন পৌঁছায় দাউন্দ স্টেশনে। জ্যোতি গোটা ঘটনা জানান রেল পুলিশকে। তৎক্ষণাৎ সাগরকে নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু চিকিৎসকরা বাঁচাতে পারেননি সাগরকে। জানা গেছে, পরিবার নিয়ে সোলাপুরে এক আত্মীয়ের বাড়ি যাচ্ছিলেন সাগর। কিন্তু ট্রেনেই সব শেষ হয়ে গেল। রেল পুলিশ ইতিমধ্যেই মারধরের অভিযোগে ৬ জন মহিলা ও চারজন পুরুষকে আটক করেছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। 

জনপ্রিয়

Back To Top