আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ অযোধ্যার পর এবার কাশি ও মথুরা। মসজিদগুলির উচিত মন্দিরের জন্য জায়গা করে দেওয়া। অযোধ্যায় রাম মন্দিরের শিলান্যাসের দিন এমনই বিতর্কিত পরিকল্পনার কথা বলে বসলেন কর্ণাটকের এক প্রবীণ মন্ত্রী কেএস ঈশ্বরাপ্পা।
কর্ণাটকের শিবামোগ্গা জেলায় রাম মন্দিরের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের উপলক্ষে ভূমি পুজো ও যজ্ঞের আয়োজন করা হয়েছে। সেই অনুষ্ঠানেই পঞ্চায়েত রাজ এবং গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী ঈশ্বরাপ্পা বললেন, ‘আজ দাসত্বের একটি চিহ্ন মুছে ফেলা হল। কাশী ও মথুরায় আরও দু’‌টি রয়ে গিয়েছে। যেগুলি মুছে ফেলা উচিত। এবং মসজিদগুলির উচিত মন্দিরের জন্য জায়গা করে দেওয়া‌।’ বিজেপির কর্ণাটক ইউনিটের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতিও ছিলেন ঈশ্বরাপ্পা। তাঁর মতে, শক্তিশালী ভারত গড়ার জন্য দাসত্বের অন্যান্য চিহ্নগুলিকে ধুয়ে মুছে সাফ করে ফেলার লক্ষ্যে সকল প্রচেষ্টা চালাতে হবে। 
কংগ্রেসের মুখপাত্র বি এল শঙ্কর আপাতত ঈশ্বরাপ্পার মন্তব্যটি নিয়ে কিছু বলতে চান না। তিনি জানালেন, ‘‌আমরা এখনও জানি না যে এটি কোনও রাজনৈতিক দল হিসাবে বিজেপির সরকারি অবস্থান কিনা। নাকি ঈশ্বরাপ্পার নিজস্ব এবং ব্যক্তিগত মতামত। বিজেপি যদি এই বিষয়ে অবস্থান নেয়, তবেই কেবল আমরা এই বিষয়ে মন্তব্য করব।’‌
কংগ্রেসও অযোধ্যায় ভূমি পূজাকে স্বাগত জানিয়ে বলেছে, এই ঘটনাটি যেন জনগণের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি না করে। মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করার জন্য পদক্ষেপ করা উচিত। কেপিসিসির সভাপতি ডিকে শিবকুমার মঙ্গলবার ঘোষণা করেছিলেন, ‘‌কংগ্রেসের সমস্ত সদস্যের হৃদয়ে ভগবান রাম বিরাজ করছেন।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top