আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সোমবার টিকটক সহ ৫৯টি চীনা মোবাইল অ্যাপ নিষিদ্ধ করে কেন্দ্র। জানায়, এগুলোর জন্য জাতীয় নিরাপত্তা বিঘ্নিত হচ্ছে। দেশবাসীর গোপন তথ্য পাচার হয়ে যাচ্ছে। তার পরেই এদিন টিকটক জানাল, এই বিষয়ে তাদের বক্তব্য শুনতে ডেকেছে সরকার। পাশাপাশি দাবি করল, ভারতীয় আইন মেনে দেশের টিকটক ব্যবহারকারীদের তথ্য গোপনই রাখে। চীন বা অন্য কোনও দেশের সরকারের হাতে তুলে দেয়নি। 
‘‌টিকটক ইন্ডিয়া’‌-র প্রধান নিখিল গান্ধী বললেন, ‘‌টিকটক সহ ৫৯টি অ্যাপ ব্লক করার জন্য অন্তর্বর্তীকালীন নির্দেশ দিয়েছে ভারত সরকার। আমরা বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চালাচ্ছি। এ বিষয়ে নিজেদের ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট সরকারি স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে দেখা করার সুযোগ পেয়েছি।’‌ পাশাপাশি এও জানানো হয় যে, ‘‌নিরাপত্তা এবং গোপনীয়তা নিয়ে ভারতীয় আইনে যা বলা আছে, তা সবসময় মেনে চলে টিকটক সংস্থা। আমরা কখনওই ভারতীয় গ্রাহকদের কোনও তথ্য চীন বা অন্য কোনও বিদেশি সরকারকে পাচার করি না। গ্রাহকদের গোপনীয়তা রক্ষার বিষয়টি আমাদের কাছে সবার আগে।’‌
লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা ঘিরে দুই দেশের চাপানউতোর বাড়ছে। ১৫ জুন চীনের সঙ্গে সংঘর্ষে ২০ জন ভারতীয় জওয়ান শহিদ হয়েছেন। এই আবহে সোমবার ৫৯টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করে কেন্দ্রীয় ইলেকট্রনিক্স ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রক। মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়, ভারতীয় গোয়েন্দাদের মতে অ্য়ান্ড্রয়েড ও আইওএস প্ল্য়াটফর্মে মোবাইল অ্য়াপের অপব্য়বহার চলছে। গ্রাহকদের গোপনীয়তা লঙ্ঘনের চেষ্টা হচ্ছে। এতে দেশের অখণ্ডতা, নিরাপত্তা বিঘ্নিত হতে পারে। সেই কারণেই সবদিক বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত।

জনপ্রিয়

Back To Top