আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‘‌আমি তেজস্বী যাদব বলছি, ডিএম সাহেব’‌। লালু–পুত্রের এই ভিডিও এখন ভাইরাল। কোনও তরুণ নেতাকে এর আগে কবে এত দাপটের সঙ্গে কথা বলতে শোনা গেছে, মনে করতে পারছেন না রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। তাই তাঁদের ধারণা, এ ছেলে বাবার থেকেও এগিয়ে যাবেন।
পাটনায় ধরনায় বসেছিলেন শিক্ষকরা। তাঁদের সমর্থন জানাতে পৌঁছে যান তেজস্বী। সেখানে গিয়েই জানতে পারেন, আন্দোলনকারীদের অবস্থান করতে দেওয়া হচ্ছে না। যে জায়গায় বিক্ষোভ দেখাবেন বলে স্থির হয়েছিল, সেখান থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। 
এর পরেই পাটনার জেলাশাসক চন্দ্রশেখর সিংকে ফোন করেন রাজদ সাংসদ। সিং তখনও জানেন না ফোনের ওপারে কে। তেদস্বী অভিযোগ করেন, আন্দোলনকারীদের ওপর লাঠি চালানো হয়েছে। তাঁদের খাবার ফেলে দেওয়া হয়েছে। অগত্যা কয়েক জন ইকো পার্কে বসে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। ‘‌রোজ রোজ কি তাঁরা অনুমতি নেবেন?’‌‌
‘‌হোয়াটস্অ্যাপে তাঁদের আবেদন পাঠাচ্ছি। আপনি দয়া করে অনুমতি দিন।’‌ বলেন তেজস্বী।
জেলাশাসক বলেন, ‘‌দেখছি।’‌
‘‌কতদিনে দেখছেন?‌’ প্রশ্ন তেজস্বীর।
ধমকে ওঠেন জেলাশাসক, ‘‌কবে মানে?‌ আমায় প্রশ্ন করছেন?‌’‌
তখনই কড়া গলায়, ‘‌ডিএম সাহেব, আমি তেজস্বী যাদব বলছি।’‌
সঙ্গে সঙ্গে ফোনের ওপারে গলা বদল। জেলাশাসক বললেন, ‘‌এক্ষুণি দেখছি।’‌
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এভাবে চললে খুব বেশি দিন নীতীশ আর বিহারে গদি টিকিয়ে রাখতে পারবেন না। 
 

জনপ্রিয়

Back To Top