আজকাল ওয়েবেডস্ক: ‌অবশেষে সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে এনডিএর সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করল টিডিপি। কেন্দ্রীয় সরকার অন্ধ্র প্রদেশকে ‘বিশেষ মর্যাদা’ না দেওয়ায় এনডিএর সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙল তেলুগু দেশম পার্টি (টিডিপি)। বুধবারই এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বলেন, ‘‌অন্ধ্রকে ‘স্পেশাল স্টেটাস’ দেওয়া সম্ভব নয়। এর বদলে সমপরিমাণ আর্থিক সহায়তা দেওয়া হতে পারে।’‌ অরুণ জেটলির এই মন্তব্যের পরই সাংবাদিক বৈঠক করে এনডিএ ছাড়ার কথা ঘোষণা করলেন অন্ধ্র প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু। তিনি দলের দুই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অশোক গজপতি রাজু এবং ওয়াই এস চৌধুরীকে পদত্যাগ করার নির্দেশ দিয়েছেন।
সাংবাদিক বৈঠকে চন্দ্রবাবু বলেন, ‘আমরা চার বছর ধরে ধৈর্য দেখিয়েছি। কেন্দ্রীয় সরকারকে সব রকমভাবে বোঝানোর চেষ্টা করেছি। বাজেটের দিন থেকে আমরা এই বিষয়টি (অন্ধ্রর স্পেশাল স্টেটাস) উত্থাপন করে আসছি। কিন্তু কেন্দ্র জবাব দেয়নি। কেন্দ্রীয় সরকার আমাদের কথা শুনছে না। আমি জানি না কী ভুল করেছি। ওরা কেন এই ধরনের কথা বলছে, সেটাও জানি না। কেন্দ্র যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল সেটা পালন করতে ব্যর্থ হয়েছে। অরুণ জেটলির মন্তব্য শেষ আঘাত ছিল। মনে হচ্ছে তাঁরা আগে থেকেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তাঁরা রাজ্যকে সাহায্য করতে চান না। তাই জোট ভাঙার অধিকার আমাদের আছে।’ চন্দ্রবাবু আরও বলেন, ‘দায়িত্ববান ও অভিজ্ঞ রাজনীতিবিদ হওয়ায় সৌজন্যবশত আমি প্রধানমন্ত্রীকে আমাদের সিদ্ধান্তের কথা জানানোর চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি।’‌ বৃহস্পতিবার সকালে টিডিপির দুই মন্ত্রী পদত্যাগ করবেন বলে জানা গিয়েছে। তারপর টিডিপি কী করবে, সে বিষয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেবে বলে টিডিপি সূত্রে জানা গিয়েছে।
সূত্রের খবর, এনডিএ ছাড়ছে টিডিপি। বিজেপি-র সঙ্গে জোট বজায় রাখা হবে কি না, সে বিষয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। একটি সূত্রে আবার বলা হচ্ছে, আপাতত কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা ছাড়লেও, সরকারকে বাইরে থেকে সমর্থন দিতে পারে টিডিপি।

 

 

 

সাংবাদিক বৈঠকে চন্দ্রবাবু নাইডু

জনপ্রিয়

Back To Top