আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ নিয়ম ভঙ্গ করেছে সুদর্শন টিভির ‘‌ইউপিএসসি জিহাদ’‌ শো। প্রাথমিকভাবে তাই মনে হয়েছে কেন্দ্রের। আগামী ২৮ সেপ্টেম্বরের মধ্যে তাদের অবস্থান জানতে চেয়ে সুদর্শন টিভি–র কর্তৃপক্ষকে শোকজ নোটিস ধরিয়েছে কেন্দ্রের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক। শীর্ষ আদালতকে জানিয়েছে মোদি সরকার।
কোনও ধর্মীয় সম্প্রদায়কে আঘাত করে এমন শো সম্প্রচার করা যাবে না, রয়েছে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের কেবল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক সংক্রান্ত নিয়মে। কেন্দ্রের বক্তব্য, সেই বিধি লঙ্ঘন করেছে সুদর্শন টিভির শো।
গত ১০ সেপ্টেম্বর সুদর্শন টিভির ‘‌ইউপিএসসি জিহাদ’‌ শো–এ ছাড়পত্র দিয়েছিল কেন্দ্র। তবে কেন্দ্রের সম্প্রচার মন্ত্রক পরিষ্কার জানিয়েছিল, ‘‌বিধিভঙ্গ না করে শো সম্প্রচার করা যাবে। আর যদি বিধিভঙ্গ হয়, তাহলে কড়া পদক্ষেপ।’‌ পরে গত ১৮ সেপ্টেম্বর এই অনুষ্ঠান সংক্রান্ত মামলায় সুপ্রিম কোর্ট বলে, ‘‌শো সম্প্রচার করাই যেতে পারে। কিন্তু গোটা সম্প্রদায়ের ঘাড়ে দোষ চাপানো যাবে না। ওই সম্প্রদায়ের কেউ সিভিল সার্ভিসে ঢুকলেই আইসিস–এর প্রসঙ্গ টেনে আনা যাবে না। তাঁরা সরকারি চাকরিতে যুক্ত হলেই সেটাই ষড়যন্ত্র হিসেবে ধরে নেওয়াও একধরনের ঘৃণার বহিঃপ্রকাশ। এক্ষেত্রে বাক্‌–স্বাধীনতার মোড়কে ঘৃণা ছড়ানো হচ্ছে। ওই সম্প্রদায়ের প্রতিটি মানুষকে নিশানা করতে পারেন না আপনারা। আর যদি কাউকে বাদও দেন, সেক্ষেত্রে বিভাজনের রাজনীতি স্পষ্ট হয়।’‌ 
সুদর্শন টিভির পক্ষে আইনজীবী শ্যাম ডিভানের উদ্দেশে বেঞ্চ বলে, ‘‌কোনও সন্ত্রাসবাদী সংগঠন টাকা ঢালছে কিনা, সেবিষয়ে তদন্তমূলক সাংবাদিকতায় শীর্ষ আদালতের কোনও বক্তব্য নেই। কিন্তু মুসলিমরা ষড়যন্ত্র করছে, একথা একেবারেই বলা যাবে না। এই বার্তা গোটা দেশে ছড়িয়ে দেওয়া হোক। বিভাজনের রাজনীতি করলে দেশ টিকবে না!‌’‌     

জনপ্রিয়

Back To Top