অংশু চক্রবর্তী: নদিয়ার হবিবপুরের তাঁতশিল্পী সরস্বতী সরকার অসামান্য কাজের জন্য এ বছর রাষ্ট্রপতি পুরস্কার পাচ্ছেন। এই পুরস্কারের খবর জানান রাষ্ট্রপতি পুরস্কার পাওয়া আর এক শিল্পী বীরেনকুমার বসাক। ৭ আগস্ট তাঁতি দিবসে সরস্বতীদেবীর হাতে এই পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে। তবে এই অনুষ্ঠান দিল্লিতে হবে না কলকাতায়, তার খবর এখনও আসেনি বলে বীরেনবাবু জানিয়েছেন। সরস্বতীদেবীর পুরস্কার পাওয়ার ঘটনায় তিনি খুব উচ্ছ্বসিত। তাঁতশিল্পীদের হাতের কাজ নিয়ে তিনি একটি সংগ্রহশালা করার পরিকল্পনা নিয়েছেন।
সরস্বতী সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, দিল্লি থেকে রাষ্ট্রপতি পুরস্কার পাওয়ার ই–‌মেল এসেছে। ৩৫ বছর ধরে তিনি ও তাঁর স্বামী রণজিৎ সরকার তাঁত বুনছেন। তবে এই পুরস্কার পাবেন, কখনও ভাবতে পারেননি। এ জন্য কলকাতায় তাঁকে পরীক্ষা দিতে হয়েছিল। অফিসারেরা খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে সব জিজ্ঞেস করেন। যে শাড়িটির জন্য তাঁকে পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে, সেটি সিল্কের ঢাকাই জামদানি। শাড়ির পাড়ে রয়েছে ময়ূর, গায়ে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের পাখি এবং লতা। ঘরসংসার সামলে এই কাজ করতে ৭ মাস লেগেছে। তাঁর বাড়ি হবিবপুরের রাঘবপুরের উত্তরপাড়ায়। তাঁর এক ছেলে, এক মেয়ে। ছেলে প্রসেনজিৎ বিএ পাশ করে উত্তরপ্রদেশে সিআরপিএফে কর্মরত। মেয়ে রমা কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএ পাশ করেছেন। বীরেনবাবু একজন অসাধারণ শিল্পী। তিনি তাঁদের বিভিন্ন ভাবে সাহায্য করেছেন। তাঁর কাছ থেকে শাড়ি তৈরির যাবতীয় উপকরণ আনতেন। বাড়িতে বসে কাজের ফাঁকে ফাঁকে শাড়ি তৈরির কাজ করতেন। অনেক কষ্ট করে ছেলেমেয়েদের লেখাপড়ার ব্যবস্থা করেছেন।

জনপ্রিয়

Back To Top