‌আজকাল ওয়েবডেস্ক: ‌সাহসিকতার ওপর ভর করে চার সশস্ত্র মাওবাদীকে খালি হাতে মোকাবিলা করে তাড়াল এক জওয়ান। শুধু তাই নয় নিজে আক্রান্ত হয়েও তাড়া করে গেল তাদের। তখন মাওবাদীদের ছুরির আঘাতে বুক থেকে রক্ত ঝড়ছে। বহু এনকাউন্টারে সাফল্য পাওয়া এই জওয়ানের নাম গোমজি মাত্তামি(‌৩৩)‌। নাগপুরের গড়চিরৌলি সদর দপ্তরে কর্মরত তিনি। 
পুলিস সূত্রে খবর, ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার। সেদিন এই এলাকায় ঢুকে পড়েছিল চার মাওবাদী। নাশকতামূলক কাজ করার উদ্দেশ্য ছিল তাদের। যা বুঝতে পেরে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন গোমজি মাত্তামি। নাশকতা করতে দেননি মাওবাদীদের। বরং তাড়া করেছিলেন নিজের জীবনকে বাজি রেখেই। খালি হাতেই মোকাবিলা করেছিলেন মাওবাদী চারজনের বিরুদ্ধে। তাঁর ওপর আক্রমণ করেছিল সশস্ত্র মাওবাদীরা। এখন গুরুতর জখম হয়ে অরেঞ্জ সিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। এই পরিস্থিতিতে তাঁর সাহসিকতার জন্য আগামী বছর পুরস্কার দেওয়া হবে বলে খবর। 
হাসপাতালের বেডে শুয়ে মাত্তামি সেদিনের ঘটনা স্মরণ করে বলেন, ‘‌আমার বেঁচে ফেরাটা এত সহজ ছিল না। আমি তখনও বুঝতে পারিনি চারজন মাওবাদী হঠাৎই আক্রমণ চালাবে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই ওই চারজন আমাকে ঘিরে ফেলে। তার মধ্যে একজন পকেট থেকে পিস্তল বার করে আমার দিকে গুলি ছোঁড়ে। কিন্তু তাদের লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। তারপর নিজেকে খানিকটা সরিয়ে নিয়ে আমিও পিস্তল বার করি। ওদের উদ্দেশ্য ছিল আমাকে খতম করা। তখন যে মাওবাদীর হাতে বন্দুক ছিল তাকে সজোরে লাথি মারি। হাত থেকে তার বন্দুক পড়ে যায়। আর একজন অতর্কিতে আমার বুকে ছোরা মারে। তখন আমার হাত থেকে পিস্তল পড়ে গেলে তারা তা নিয়ে নেয়। আমি মাটি থেকে উঠে ফের আমার পিস্তল ছিনিয়ে নিয়ে ওদের তাড়া করি। গুলিও চালাই। কিন্তু ওরা পালাতে সক্ষম হয় আমি জখম হয়ে পড়েছিলাম বলে।’‌ ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top