আজকাল ওয়েবডেস্ক: সুশান্ত নিজের ভ্যানিটি ভ্যানে বসে মাদক নিতেন। এমনকী শুটের ফাঁকেও নেশা করতেন। ফাঁস করলেন অভিনেতা সারা আলি খান এবং শ্রদ্ধা কাপুর।
সারা আলি খান এবং শ্রদ্ধা কাপুরকে এনসিবির ব্যালার্ড এস্টেটের অফিসে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। সূত্রের খবর, শ্রদ্ধা পাবনা দ্বীপে সুশান্তের সঙ্গে পার্টি করার কথা এবং সেখানে মাদক সেবন এবং মদ্যপানের আসরের কথা ও ‘‌ড্রাগ চ্যাট’– এর কথা স্বীকার করেছেন কিন্তু কোনওরকম মাদক সেবনের কথা অস্বীকার করেছেন। শনিবার দুপুরে এনসিবির অফিসে পৌঁছন শ্রদ্ধা। ছ’জন অফিসার তাঁকে জেরা করেন।
অভিনেতা সারা আলি খান এবং শ্রদ্ধা কাপুর জানিয়েছেন, ‘‌কেদারনাথ’ ও ‘‌ছিছোড়ে’‌‌‌ ছবির শুটের সময়ে দু’‌জনেই সুশান্তের নেশার বিষয়টা লক্ষ্য করেছিলেন। তিনি এমনই মাদকাসক্ত ছিলেন যে শুটে কিছুক্ষণের বিরতি পড়লেও নেশা করতেন।   
সুশান্ত মৃত্যুরহস্য মামলার তদন্তে নেমে বলিউড–মাদক যোগের ঘটনা সামনে আসতে সিবিআই এবং ইডির সঙ্গে এই মামলায় তদন্ত শুরু করেছে এনসিবি। সেই তদন্তে নেমেই সুশান্তের ট্যালেন্ট ম্যানেজার জয়া সাহার হোয়াটস্‌অ্যাপ থেকে দীপিকা এবং শ্রদ্ধা কাপুরের নাম পায় এনসিবি। তারপরই তাঁদের জেরার জন্য তলব করা হয়। শুক্রবারই রকুল প্রীত সিং এবং করিশ্মা প্রকাশকে জেরা করেছিল এনসিবি। দীপিকাও ‘‌ড্রাগ চ্যাট’– এর কথা স্বীকার করেন।‌ রকুল প্রীত সিংও ‘‌ড্রাগ চ্যাট’– এর কথা স্বীকার করেছেন কিন্তু এও জানিয়েছেন জীবনে কখনও মাদক সেবন করেননি।

জনপ্রিয়

Back To Top