আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ পাটনায় সাংবাদিক বৈঠক করছিলেন নীতীশ কুমার। তারমধ্যেই হঠাৎ এক ব্যক্তি চটি ছুঁড়ে মারেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারকে। দলের যুব সংগঠনের সাংবাদিক বৈঠকে এমন ঘটনায় স্তম্ভিত নীতীশও। সেসময় সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সদ্য জেডিইউ–তে যোগদানকারী নির্বাচনী পরামর্শদাতা প্রশান্ত কিশোরও। 
বাবু সভাঘরে মুহূর্তে হুলুস্থূল পড়ে যায়। পুলিস সঙ্গে সঙ্গে গ্রেপ্তার করে অভিযুক্ত চন্দন কুমার। পুলিস জানিয়েছে ঔরঙ্গাবাদের বাসিন্দা। বিহার সরকারের সংরক্ষণ নিয়ে তিনি এতোটাই ক্ষুব্ধ যে কারণে নীতীশকে চটি ছুঁড়ে মারেন।  চন্দন কুমারের অভিযোগ সংরক্ষণ চালু হওয়ার কারণেই তিনি নাকি চাকরি পাচ্ছেন না। কারণ তিনি উচ্চবর্ণের। 
নীতীশকে জুতো মারার সঙ্গে সঙ্গে জেডিইউ–র যুব সংগঠনের সমর্থকরা তাঁকে ধরে ফেলে, মারধরও করে। যদিও এই নিয়ে নীতীশ কুমার কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি। 
গত কয়েক মাস ধরে নীতীশ কুমার দলের বিভিন্ন শাখা সংগঠনের সঙ্গে বৈঠক করছেন। লোকসভা নির্বাচনের আগে দলের কর্মীদের চাঙ্গা করাই এর মূল উদ্দেশ্য বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top