রাজীব চক্রবর্তী,দিল্লি: বিজেপি–তে যোগ দিলেন বিধায়ক ও কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চ্যাটার্জি। তাঁর সঙ্গেই বিজেপি–তে এলেন তাঁর ঘনিষ্ঠ বৈশাখী ব্যানার্জি। তাঁদের সঙ্গেই বিজেপি–তে যোগ দেবেন বলে ‌‌‌বুধবার দিল্লিতে দলের সদর দপ্তরে হাজির হন অভিনেত্রী–বিধায়ক দেবশ্রী রায়ও। কিন্তু শোভন–‌বৈশাখীর আপত্তিতে বিজেপি–র মঞ্চে ঠাঁই হয়নি রায়দিঘির বিধায়কের। মুকুল রায় বলেছেন, ‘‌দেবশ্রী কার সঙ্গে যোগাযোগ করে এসেছেন, আমার জানা নেই। রাজ্য নেতাদের না জানিয়ে এভাবে বিজেপি–‌তে যোগ দেওয়া যায় না।’ ঘনিষ্ঠ মহলে মুকুল জানান, তঁার বা রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সঙ্গে কোনও কথা হয়নি দেবশ্রীর। তিনি নিজেই দিল্লি চলে এসেছেন। দেবশ্রী রায়ের সঙ্গে যে তাঁর কোনও কথা হয়নি, তা প্রকাশ্যে বলেছেন দিলীপ ঘোষও। 
এদিন আনুষ্ঠানিকভাবে গেরুয়া উত্তরীয় গলায় পরে বিজেপি–‌তে নাম লেখালেন শোভন–‌বৈশাখী। কলকাতা পুরসভা নির্বাচনে শোভনকে মেয়র পদপ্রার্থী হিসেবে তুলে ধরার কথা ভাবছে বিজেপি। তবে তাঁর সঙ্গে সদর দপ্তরে একই মঞ্চে বৈশাখীর উপস্থিতি বিজেপি–র পুরনো নেতাদের অনেককেই কিছুটা হতচকিত করে দেয়। কারণ, সদর দপ্তরে দলে যোগ দেন গুরুত্বপূর্ণ নেতারা। এদিন মুকুলের পা‌য়ে হাত দিয়ে প্রণাম করতেও দেখা গিয়েছে বৈশাখীকে। শোভন বলেছেন, ‘‌রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিরোধী দলগুলিকে প্রার্থী দিতে দেওয়া হয়নি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ যেভাবে নতুন ভারত গড়ছেন, তাতে অংশ নিতে চাই।’‌‌‌
দেবশ্রী রায় বুধবার দিল্লি আসেন। তাঁকে দেখেই মুকুল রায়ের কাছে উষ্মা প্রকাশ করেন শোভন–‌বৈশাখী। দলীয় সূত্রের খবর, বিধায়ক হিসেবে গত ৫ বছরের ‘‌পারফরমেন্স’‌ ভাল না হওয়ায় রায়দিঘিতে তাঁকে প্রার্থী করা হলেও তিনি জয়ী হবেন কিনা তা নিয়ে সংশয় রয়েছে বিজেপি–র। দেবশ্রী নিজে এ সম্পর্কে কিছু জানাতে চাননি।
এদিকে, কলকাতায় বিজেপি–র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানিয়ে দেন, শোভন চ্যাটার্জিকে রাজ্য বিজেপি মোটেই ‘‌ক্লিন চিট’‌ দিচ্ছে না। দিলীপ ঘোষ বলেন, তিনি এখনও দোষী নন। যদি আদালত তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করে, তাহলে তাঁকে নিয়ে দলে আলোচনা হবে এবং ব্যবস্থাও নেওয়া হবে। তিনি বলেন, ‘এখন দল বাড়াতে গেলে অভিযুক্ত ও অভিযোগ নেই এমন দু’‌পক্ষকেই আনতে হবে। আমাদের যথেষ্ট লোক নেই। তাই এবার ১৮–য় আটকে গেলাম। ২৩ হল না। দলে আমাদের লক্ষ্যপূরণ হলে অভিযুক্ত লোক নেওয়া বন্ধ করে দেব।’‌
কলকাতা পুরসভার ভোট হলে শোভনকে মেয়র প্রার্থী হিসেবে তুলে ধরা হবে?‌ দিলীপের বক্তব্য, নির্বাচন আসুক, তখন ঠিক হবে।  ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top