‌আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৯৮এ ধারা গৃহবধূদের রক্ষাকবচ। কিন্তু সেই আইনকে দেশজুড়ে অপব্যবহার করা হচ্ছে। শুক্রবার সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দিল, এই ধারায় অভিযুক্তরা এখন থেকে আগাম জামিনের আবেদন করতে পারবেন। এতদিন এটি জামিনঅযোগ্য অভিযোগ হিসাবেই গণ্য ছিল। ৪৯৮এ ধারার অপব্যবহারের বিষয়ে আদালতের দৃষ্টি আকর্ষণ করে একগুচ্ছ আবেদন জমা হয়েছিল দেশের সর্বোচ্চ আদালতে। গত বছর জুলাই মাসে সুপ্রিম কোর্টের দুই বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ ৪৯৮এ ধারার অপব্যবহারের বিষয়ে কড়া অবস্থান গ্রহণ করে। অভিযোগ ভাল করে খতিয়ে না দেখে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারই করা যাবে না বলে নির্দেশ দেয়।
তার মধ্যে মহারাষ্ট্রের আহমেদনগর জেলার বেশ কিছু মহিলা আইনজীবীদের তৈরি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা নয়াধার সুপ্রিম কোর্টে একটি আবেদন জমা করে। তাদের দাবি, ৪৯৮এ ধারাকে আরও তীক্ষ্ণ করা প্রয়োজন। না হলে আক্রান্তদের এই রক্ষাকবচ ক্রমশ অকেজো হয়ে পড়বে। এরপর সুপ্রিম কোর্টে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ শুক্রবার জানায়, পণ প্রথা ও গার্হস্থ্য হিংসার হাত থেকে মেয়েদের রক্ষা করা নিশ্চিতভাবেই আদালতের দায়িত্ব। তবে ৪৯৮এ ধারার মতো আইনের অপব্যবহার করে যদি সমাজে পুরুষদের অকারণ হয়রানি করা হয় তাহলে সেটি রোখাও আদালতের কর্তব্যের মধ্যে পড়ে। এক্ষেত্রে যাতে সমাজে অস্থিরতা সৃষ্টি না হয় তাও দেখতে হবে। এরপরই শীর্ষ আদালত জানিয়ে দেয়, এবার থেকে ৪৯৮এ ধারায় অভিযুক্তরাও আগাম জামিনের আবেদন করতে পারবেন। 

জনপ্রিয়

Back To Top