আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌  অযোধ্যার পর আজ শবরীমালা মামলায় রায় দান। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ শুরু হয় রায়দান প্রক্রিয়া। ৫ বিচারপতির বেঞ্চে এক মত না হওয়ায় মামলাটি এ বার সাংবিধানিক বেঞ্চে পাঠানো হয়েছে। মীমাংসা না হওয়া পর্যন্ত শবরিমালা নিয়ে আগের রায়ই বহাল রাখার সিদ্ধান্ত নিল সুপ্রিম কোর্ট। আজ প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ রায় ঘোষণা করেন। গত বছরের শবরীমালার মামলা নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট যে রায় দিয়েছিল, সেই রায় পুনরায় বিবেচনা করা হবে কিনা, তা নিয়ে পাঁচ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চের ২ জন বিচারপতি ভিন্ন মত পোষণ করেন। তিন বিচারপতি পুনর্বিবেচনার পক্ষে কথা বলেন। তারপরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, এই মামলায় আরও অনেকগুলি বিষয় খতিয়ে দেখা বাকি আছে। তাই শবরীমালার মামলা পাঠিয়ে দেওয়া হল সাত জন বিচারপতির বেঞ্চে। ওই সাত সদস্যের বেঞ্চেই পুনরায় মামলার শুনানি চলবে। একই সঙ্গে মন্দিরে মুসলিম এবং পার্সি মহিলাদের প্রবেশাধিকার নিয়েও শুরু হয়েছে বিতর্ক।
গত বছর ২৮ সেপ্টেম্বর শবরীমালা মন্দিরের প্রথার বিরুদ্ধে রায় দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। কেরলের শবরীমালার আয়াপ্পা মন্দিরে সব বয়সী মহিলাদের প্রবেশে আর কোনও বাধা থাকবে না, গত বছরের শেষে এমন রায়ই দিয়েছিল দেশের শীর্ষ আদালত। ধর্মীয় আচারের অনেক উর্ধ্বে উঠে নারী-পুরুষের সমানাধিকারেই শিলমোহর দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। পুরনো প্রথা ভেঙে শবরীমালার দরজা খুলে দেওয়া হয়েছিল মহিলাদের জন্য। তারপরেই এই রায় পুনরায় বিবেচনার করার জন্য ৫০টি আর্জি জমা পড়ে সুপ্রিম কোর্টে। আজকের রায়ে , এই মামলা সাত বিচারপতির বেঞ্চে পাঠিয়ে দেওয়া হল। এই মামলা এখনও অমীমাংসিত। তবে, যতদিন না এই মামলার মীমাংসা হচ্ছে ততদিন পুরনো রায়ই বহাল থাকবে। 

জনপ্রিয়

Back To Top