আজকাল ওয়েবডেস্ক: বিজেপির সঙ্গে তাঁর কথাবার্তা চলার খবরের প্রেক্ষিতে শচীন সোমবার স্পষ্ট করেছেন যে তিনি বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন না। রাজস্থানে রাজনৈতিক সঙ্কট কাটাতে আজ দলের পরিষদীয় দলের বৈঠকে সব বিধায়কদের হাজির হতে যে হুইপ জারি করেছিল কংগ্রেস তাতে যেতে মানা করে দিয়েছেন শচীন পাইলট।  শচীন ঘনিষ্ঠদের দাবি, বিধানসভায় যেহেতু অধিবেশন চলছে না তাই ওই হুইপ ভিত্তিহীন। বৈঠক ডাকেন মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট। রাজস্থানে কংগ্রেসের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা এবং দলের সাধারণ সচিব অবিনাশ পান্ডেও বলেন, বৈঠকে যোগ না দিলে তাঁদের বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের পদক্ষেপ করা হবে।
সোমবার ভোররাত আড়াইটের সময় জয়পুরে সাংবাদিক সম্মেলনে দাবি করেন, রাজ্যে সরকার পড়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। কারণ তাঁদের কাছে ১০৯জন বিধায়কের সমর্থন আছে। ওই বিধায়করা অশোক গেহলটের সরকারকে নিজেদের সমর্থন জানিয়ে এবং সোনিয়া গান্ধী, রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বের উপর আস্থা রেখে তাঁদের স্বাক্ষরিত চিঠি পাঠিয়েছেন। এর আগে জয়পুরে মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে কংগ্রেস পরিষদীয় দলের বৈঠক হয়। অবিনাশের আরও দাবি, আরও কয়েকজন বিধায়ক টেলিফোনে গেহলটকেই সমর্থনের আশ্বাস দিয়েছেন। সাংবাদিক সম্মেলনে হাজির ছিলেন অজয় মাকেন এবং রমদীপ সুরজেওয়ালা। অবিনাশ বলেন, কোনও বিধায়কদের কোনও সমস্যা থাকলে তাঁরা ব্যক্তিগতভাবে তাঁর সঙ্গে দেখা করে সমস্যা নিয়ে আলোচনা করতে পারেন। তিনি তা অবশ্যই সমাধানের চেষ্টা করবেন।

জনপ্রিয়

Back To Top