আজকালের প্রতিবেদন, দিল্লি, ১০ জুলাই

করোনা সঙ্কট‌ চলার সময় কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা বাতিল করার দাবি তুললেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। তাঁর দাবি, আইআইটি–র মতোই পরীক্ষা বাতিল করে পড়ুয়াদের অতীত দক্ষতার ভিত্তিতে তাঁদের পরের পর্যায়ে উত্তীর্ণ করুক বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। 
শুক্রবার ‘‌স্পিকআপ ফর স্টুডেন্টস’‌ নামক এক অনুষ্ঠানে রাহুল যে মন্তব্য করেছেন, পরে এক ভিডিও বার্তায় সেই একই কথা বলেছেন তিনি। কংগ্রেস নেতার অভিযোগ, করোনা আবহে চূড়ান্ত বর্ষ ও চূড়ান্ত সেমেস্টারের পরীক্ষা বাধ্যতামূলক হওয়ায় ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। তাঁর মতে, দেশজুড়ে যখন করোনাভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে, তখন বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা নেওয়া মোটেই বাঞ্ছনীয় নয়। বরং ইউজিসি কর্তৃপক্ষের উচিত পড়ুয়াদের বক্তব্য শুনে তারপর উপযুক্ত বন্দোবস্ত করা।
কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চূড়ান্ত সেমেস্টার এবং চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা বাধ্যতামূলক বলে জানিয়ে দিয়েছে ইউজিসি। করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোন পদ্ধতিতে পরীক্ষা নিতে হবে, সে বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়গুলির কাছে নির্দেশ পাঠিয়েছে তারা। কীভাবে পরীক্ষা নেওয়া হবে, সে বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর কাছে ৩০ দফার একটি ‘স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রোসিডিওর’ পাঠানো হয়েছে। সেখানে মাস্ক পরা, দূরত্ব বজায় রাখা–‌সহ একাধিক ব্যবস্থার উল্লেখ রয়েছে। এমনকী, পরীক্ষার্থীদের কারও শরীরে জ্বর আছে কিনা, তা শনাক্ত করতে পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশের আগে থার্মোগান রাখার কথাও বলা হয়েছে নির্দেশিকায়। 
 

জনপ্রিয়

Back To Top