আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ পিএনবি কাণ্ডে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে জালিয়াতির অঙ্ক। সাম্প্রতিক তথ্য অনুসারে এখনও পর্যন্ত পিএনবি কেলেঙ্কারিতে মোট জালিয়াতি হওয়া অর্থের পরিমাণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে প্রায় ২৯ হাজার কোটি টাকা। প্রথম দিনে এই অঙ্কটাই ছিল ১২ হাজার কোটিতে। এখন সেটাই বেড়ে হয়েছে ২৯ হাজার কোটি।
বলা হয়েছে, ২০১১ সাল থেকে একেবারে ২০১৭ পর্যন্ত, এই সময়সীমার মধ্যে এই জালিয়াতির কারবার চালিয়েছিলেন নীরব মোদি ও তাঁর সাঙ্গপাঙ্গরা। কংগ্রেস হোক বা বিজেপি, কোনও সরকারের আমলেই এই জালিয়াতির পরিমাণ একটুও কমেনি। হিসাবে দেখানো হয়েছে, ইউপিএ সরকারের আমলে, ২০১১ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে মোট ৯ হাজার কোটির জালিয়াতি করেছিলেন নীরব মোদি। এরপর বিজেপির আমলে সেই জালিয়াতির পরিমাণ বেড়ে যায় বহুগুন। ২০১৫ সাল থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে এই জালিয়াতির অঙ্ক হয় প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকা। কোনও সরকারই এই ঘটনার বিষয়টি নিয়ে ঘুণাক্ষরেও কিছু টের পায়নি। 
পিএনবি জালিয়াতির পরেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঘোষণা করেছিলেন, অভিযোগ প্রমাণ হলে কঠোর শাস্তি পাবে অভিযুক্ত। কিন্তু এতদিনেও দেশে ফেরার কোনও উচ্চবাচ্য করেননি নীরব। বরং বিদেশ থেকেই হুমকি দিয়েছেন, টাকা ফেরত দেবেন না তিনি। তাঁর মনে হয়, এই ঘটনার ফলে বাজারে তাঁর সুনাম নষ্ট হয়েছে। সেটার জন্যই আর টাকা ফেরাবেন না তিনি। ‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top