আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ এসবিআই, পিএনবি–র পর এবার পিএমসি দুর্নীতি মামলাও মাথাব্যথা বাড়াচ্ছে কেন্দ্রের। গত দুদিনে তিনজন আমানতকারীর মৃত্যুর পর এবার প্রাক্তন কর্তাদের হেপাজতের মেয়াদ বাড়াল আদালত। বৃহস্পতিবার মুম্বইয়ের এসপ্ল্যানেড আদালত এই মামলার অন্যতম অভিযুক্ত পিএমসি–র প্রাক্তন এমডি জয় টমাসের পুলিসি হেপাজত বদলে ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেপাজতের নির্দেশ দিয়েছে। এছাড়া, বুধবার গ্রেপ্তার হওয়া প্রাক্তন ডিরেক্টর এস সুরজিৎ সিং অরোরাকে আগামী ২২ তারিখ পর্যন্ত পুলিসি হেপাজতের নির্দেশ দিয়েছেন এসপ্ল্যানেড আদালতের বিচারক। বুধবার সুরজিতকে গ্রেপ্তার করেছিল মুম্বই পুলিসের ইকোনমিক অফেন্স উইং বা ইওডব্লু। জয়ের আইনজীবী রাকেশ সিং অরোরা পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেছেন, তদন্তকারী দল আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিসি হেপাজতের মেয়াদ বাড়াতে চাইলেও তাঁদের আবেদন গ্রহণ করে জয়কে বিচারবিভাগীয় হেপাজতেই পাঠিয়েছে আদালত। তাঁরা এবার জয়ের জামিনের আবেদন করবেন বলে জানালেন রাকেশ।
অন্যদিকে পিএমসিকান্ডের মূল অভিযুক্ত তথা প্রোমোটিং কোম্পানি এইচডিআইএল–এর কর্ণধার রাকেশ এবং সারঙ্গ ওয়াধওয়ান এদিন আরবিআই, কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রক এবং তদন্তকারী সংস্থা ইডি–কে আবেদন করেছেন, ব্যাঙ্কের দেনা মেটাতে তাঁদের সম্পত্তি যেন বিক্রি করা হয়। বুধবারই তাঁদের বিচারবিভাগীয় হেপাজতের নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। এরপর বাবা–ছেলে জুটি ইডি, অর্থ মন্ত্রক এবং আরবিআই–কে চিঠি লিখে আবেদন করেছেন তাঁদের স্থাবর–অস্থাবর সম্পত্তির ১৮টি সম্পদ বেচে ব্যাঙ্কের ঋণ মেটানো হোক। এই সম্পত্তির মধ্যে আছে রোলস্‌ রয়েস, বিএমডব্লু, অডি–র মতো অত্যাধুনিক গাড়ি, ফ্যালকন ২০০০ বিমান, ফের্‌রত্তি ইয়ট ৮৮১, সাত আসনের ডলফিন সুপার ডিলাক্স ৩১এইচটি স্পিড বোটের মতো প্রচুর দামি এবং অত্যাধুনিক যানও। মুম্বই পুলিসের ইওডব্লু–র মতে ওয়াধওয়ানদের দুর্নীতির পরিমাণ ৪৩৫৫ কোটি টাকা। 
ছবি:‌ এএনআই 

জনপ্রিয়

Back To Top