Pakistan ISI: উৎসবে হামলাই ছিল লক্ষ্য!‌ আইএসআই প্রশিক্ষিত দু’‌জন সহ ৬ জঙ্গি গ্রেপ্তার

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ শুরু হচ্ছে দেশজুড়ে উৎসবের মরসুম। সেই উৎসবের সময় নাশকতা ছড়ানোই ছিল লক্ষ্য। চেয়েছিল, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ভিড়ের মধ্যে বোমা রেখে বিস্ফোরণ ঘটাবে। সেই ছকই ভেস্তে দিল দিল্লি পুলিশ। ছ’‌ জনকে গ্রেপ্তার করল। তাদের মধ্যে দু’‌জন আবার পাকিস্তানে গিয়ে প্রশিক্ষণ নিয়েছে। পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই তাদের প্রশিক্ষণ দিয়েছে। সম্প্রতি ফিরেছে দেশে।
গোয়েন্দা সূত্রে খবর ছিল দিল্লি পুলিশের কাছে। সেই মতো রাজস্থান, দিল্লি, উত্তরপ্রদেশে অভিযান চালানো হয়। দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেলের অফিসার নীরজ ঠাকুর জানিয়েছেন, ‘‌সকালে তল্লাশির সময় রাজস্থানের কোটা থেকে গ্রেপ্তার হয় মহারাষ্ট্রের এক জঙ্গি। উত্তরপ্রদেশের সন্ত্রাস দমন শাখা (‌এটিএস)‌–এর সাহায্যে গ্রেপ্তার হয় তিন জন। দু’‌জন ধরা পড়ে দিল্লিতে।’‌ 
ধৃতরা হল মুম্বইয়ের জান মহম্মদ শেখ (‌৪৭)‌, দিল্লির ওসামা (‌২২)‌, রায়েবেরিলির মূলচাঁদ (‌৪৭)‌, প্রয়াগরাজের জিশান কামার (‌২৮)‌, বাহরিচের মহম্মদ আবু বকর (‌২৩)‌, লখনউয়ের মহম্মদ আমির জাভেদ (‌৩১)‌। নীরজ ঠাকুর জানিয়েছেন, ধৃত ছ’জনের মধ্যে দিল্লির ওসামা এবং প্রয়াগরাজের বাসিন্দা জিশান কামার পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই–এর প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। তারা ওমানের মাসকট থেকে নৌকায় পাকিস্তানে গিয়েছিল নাশকতার প্রশিক্ষণ নিতে। পাকিস্তানে একটি খামারবাড়িতে ১৫ দিনের জন্য তাদের রাখা হয়েছিল। সেখানেই তারা আগ্নেয়াস্ত্র এবং বিস্ফোরক ব্যবহারের প্রশিক্ষণ নিয়েছিল।
পুলিশ এদিন বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, সীমান্তের ওপার থেকে আইইডি জোগার করছিল তারা। জেরায় জানা গিয়েছে, প্রচুর আরডিএক্স, পিস্তল, গ্রেনেডও হাতে এসেছিল তাদের। সেগুলো উত্তরপ্রদেশে লুকিয়ে রেখে এসেছিল তারা। হাওয়ালার মাধ্যমে সেসব এসেছে। দায়িত্বে ছিল মূলচাঁদ এবং শেখ। 
Taliban: লক্ষ্য উদার ভাবমূর্তি প্রকাশ!‌ আরও বেশি নেটমাধ্যমে নয়া তালিবান সরকার