আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে জেরবার দেশ। সংক্রমণ এড়াতে আরও বেশি করা করোনা পরীক্ষা জরুরি হয়ে পড়েছে। পাশাপাশি টিকাকরণও দরকার। এই পরিস্থিতিতে জায়গায় জায়গায় করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু বৃহস্পতিবার বিহারের বক্সার স্টেশনে যে ছবি ধরা পড়ল যা দেখলে গায়ে কাঁটা দিতে পারে। বাইরের রাজ্য থেকে আসা বিভিন্ন ব্যক্তি ও পরিযায়ী শ্রমিকদের স্টেশন থেকে বেরনোর মুখে করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। কিন্তু যাত্রীরা পরীক্ষা এড়াতে দৌড়ে পালালেন স্টেশনে থেকে। সেই ঘটনাই কেউ ক্যামেরাবন্দি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন। যা ভাইরাল হতে সময় নেয়নি।
ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, মহিলা শিশু–সহ কয়েক শো মানুষ যেন বন্যার জলের মতো স্টেশন থেকে দৌড়ে বেরিয়ে আসছেন। প্রথমে দেখলে মনে হবে যেন স্টেশনে আতঙ্কজনক কিছু ঘটেছে। কিন্তু আসলে তাঁদের করোনা পরীক্ষা করতে বলা হচ্ছিল। আর তাঁরা চাননি তাঁদের করোনা পরীক্ষা হোক। তাই পরীক্ষা এড়াতে তাঁরা ব্যাগপত্র নিয়ে পড়িমরি করে দৌড়ে পালিয়েছেন। স্টেশন থেকে বেরনোর মুখে ক্যাম্প করে কয়েক জন স্বাস্থ্য কর্মী করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করেছেন। তাঁরা আবেদনও করছেন বাইরে থেকে ঘরে ফেরা যাত্রীদের। কিন্তু তাঁদের কথা কার্যত কেউ শুনছেন না। আর সেখানে নেই পর্যাপ্ত পুলিশ কর্মীও। ফলে পলায়মান যাত্রীদের আটকানোর কোনও ব্যবস্থাও ছিল না।
করোনা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নতুন করে লকডাউনের আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। যার ফলে আবার বাড়ি ফেরার হিড়িক পড়েছে পরিযায়ী শ্রমিকদের। এই পরিস্থিতিতে নীতীশ কুমার নির্দেশ জারি করেছেন, বাইরের রাজ্য থেকে যাঁরা ফিরছেন তাঁদের জন্য স্টেশনে স্টেশনে করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু তা আর কে শোনে!‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top