আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ নাচতে হবে। কাপড় কাচতে হবে। পরিচারিকাদের কাজও করে দিতে হবে। এক জওয়ানের অভিযোগ এমনই জুলুম চলে তাঁদের উপর। এই অন্যায় আবদার করেন উচ্চপদস্থ সেনা অফিসারদের স্ত্রীরা। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে জওয়ান বলছেন, ‘‌কোয়ার্টারে সেনা অফিসারদের স্ত্রী’‌রা শুধু আমাদের নয়, পরিবারকেও হেনস্থা করেন। কম যান না অফিসাররাও। নিজেদের স্ত্রীকেও স্যালুট করার নির্দেশ দেন। ‌মাঝেমধ্যে আমাদের স্ত্রীদেরও বলেন নেচে দেখাতে। তারপর তাঁদের নিয়ে হাসাহাসি করেন। নিজেদের ক্ষমতার অপব্যবহার করে আমাদের দিয়ে বাড়ির অন্যান্য কাজকর্মও করান। বাজার করে আনা, কাপড় জামা কাচানো ইত্যাদি। প্রায় ২৫ থেকে ৩০ জনকে এভাবে জোর করে বাড়িতে চাকর বানিয়ে রাখা হয়েছে।’ 
সেনা অফিসারের সঙ্গে একজন জওয়ান থাকবেন। ব্রিটিশ আমলের এই নিয়মের অবসানও চান ওই জওয়ান। এরপর বলেন, ‘‌জানেন ‌কীভাবে ‌মাত্র এক মাসের ট্রেনিং নিয়ে একজন সেনাকে সহজেই গুলি করে মারতে পারে সন্ত্রাসবাদীরা?‌ কারণ জওয়ানদের লড়াইয়ের কাজে না ব্যবহার করে তাঁদের দিয়ে এভাবে ঘরের কাজ করানো হচ্ছে।‌’‌‌ এখানেই শেষ নয়, ওই ব্যক্তি আরও জানান, জওয়ানরা তাঁদের জন্য নির্ধারিত অনেক কিছু থেকেই বঞ্চিত হন।‌‌ তবে ওই জওয়ানের নাম বা তিনি কোন রেজিমেন্টের সদস্য সেটা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি।

জনপ্রিয়

Back To Top