আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিয়ে নিশ্চিত নয় জেনেও যদি কোনো মহিলা দিনের পর দিন কোনো পুরুষের সঙ্গে সহবাস করেন, তা হলে ওই পুরুষের বিরুদ্ধে বিয়ের মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের অভিযোগ করা যাবে না বলে জানাল সুপ্রিম কোর্ট।
বুধবার সুপ্রিম কোর্টে এই সংক্রান্ত একটি মামলার শুনানিতে বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় এবং বিচারপতি ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায় এই মন্তব্য করেন। সিআরপিএফের একজন ডেপুটি কমান্ডান্টের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন সেলস ট্যাক্সের এক সহকারী কমিশনার। প্রায় ছ’বছর ধরে তাঁদের সম্পর্ক অব্যাহত ছিল। এমনকী মাঝেমধ্যে কারণ বিশেষে তাঁরা একই সঙ্গে থাকতেন। আদালত জানায়, এটা থেকেই স্পষ্ট তাঁরা উভয়ের সম্মতিতেই এভাবে জীবনযাপন করতেন।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরেই মহিলাকে চিনতেন সিআরপিএফের ডেপুটি কমান্ডান্ট। মহিলার অভিযোগ, ২০০৮ সালে তাঁকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ করেন ওই ব্যক্তি। এভাবেই কেটে যায় ছ’বছর। ২০১৪ সালে মহিলাকে বিয়ে করতে অরাজি হন ওই ব্যক্তি। কিন্তু তারপরেও টিকে থাকে সম্পর্ক। তবে ২০১৬ সালে সিআরপিএফ আধিকারিক অন্য এক মহিলাকে বিয়ে করলে সম্পর্ক ছিন্ন হয়। এবং তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করেন ওই মহিলা।
বিচারপতিদের বেঞ্চ জানায়, কোনো ক্ষেত্রে বিয়ের প্রতিশ্রুতিটাই মিথ্যে হতে পারে। অন্য দিকে প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পর তা মেনে না চলার মানসিকতা নিয়ে যদি সহবাস চালিয়ে যাওয়া হয়, তা হলে সেটাকেও মিথ্যে প্রতিশ্রুতি হিসাবে ধরতে হবে। কিন্তু প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পর তা কোনো কারণে সম্পূর্ণতা না পেলে সেটাকে মিথ্যে প্রতিশ্রুতি হিসাবে ধরে নেওয়া যায় না। কোনো প্রতিশ্রুতি তখনই মিথ্যা প্রমাণিত হয়, যখন ওই প্রতিশ্রুতি দেওয়ার নেপথ্যে নির্দিষ্ট প্রতারণামূলক উদ্দেশ্য থাকে।

জনপ্রিয়

Back To Top